• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান

ভিডিও থেকে নেওয়া ছবি

নির্বাচন

ছাড়া পেয়েছেন বিএনপি নেতা নোমান  

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৬ মে ২০১৮

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমানকে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রাখার ছেড়ে দিয়েছে টঙ্গি থানা পুলিশ।  

রোববার বিকাল ৫টার দিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক মন্ত্রী নোমান।  গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন স্থগিতের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ওই সংবাদ সম্মেলনে। এরপর রাত ১০টার দিকে টঙ্গী থানা থেকে নোমানকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে তার সহকারী নুরুল আজিম হীরু জানান।  তিনি বলেন, ‘ছেড়ে দিয়েছে, স্যার এখন ঢাকার পথে রওনা দিয়েছেন।’

গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন-অর রশীদ বলেন, নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখা দেওয়ায় সাবেক মন্ত্রী নোমানকে থানায় রাখা হয়েছিল, পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

নির্বাচনী এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টির অভিযোগে নোমানসহ অন্যদের গ্রেফতার করা হয় বলে সন্ধ্যার পর গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ জানিয়েছিলেন।

বিকালের ওই সংবাদ সম্মেলন থেকে বেরিয়ে আসার কিছুক্ষণ পরই নোমানকে পুলিশ তার গাড়ি থেকে আটক করে বলে দাবি করেছেন গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলন। তিনি বলেন, সংবাদ সম্মেলন শেষে হাসান সরকারের বাসা ত্যাগ করে নোমান ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে হেফাজতে নেয়।

মিলন আরো বলেন, নোমানকে হেফাজতে নেওয়ার কিছুক্ষণ পরই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পৌরসভার হাউসপুর এলাকায় হাসান সরকারের বাড়ি ঘেরাও করে রাখে।  সেখানে হাসান সরকারসহ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, স্থানীয় বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন ও তিনি (মিলন) নিজেও অবস্থান করছেন।

সাবেক মন্ত্রী নোমানকে আটকের বিষয়ে টঙ্গী থানায় ফোন করা হলে দায়িত্বরত কর্মকর্তা এএসআই তানিয়া আখতার বলেন, নোমানসহ ১৩ জনকে থানায় আনা হয়েছে।  

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads