• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
ads
জয়-পরাজয়ের নির্ধারক তরুণ ভোটার 

সংগৃহীত ছবি

নির্বাচন

জয়-পরাজয়ের নির্ধারক তরুণ ভোটার 

  • শেরপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর-১ (সদর), শেরপুর-২ (নকলা-নালিতাবাড়ী), শেরপুর-৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনে ভোটার ছিল ৯ লাখ ৭ হাজার ২৬৩ জন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৩৬ হাজার ৫৬ জনে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ১২ হাজার ২৪৩ জন এবং নারী  ভোটার ৫ লাখ ২৩ হাজার ৮১৩ জন। ভোটার বেড়েছে ১ লাখ ২৮ হাজার ৭৯৩ জন। এ সংখ্যার প্রায় পুরোটাই তরুণ ভোটার। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।  

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা জানায়, তাদের মধ্যে বৃহৎ একটি অংশ দশম সংসদ নির্বাচনে ভোট দিতে কেন্দ্রেই যায়নি। কিন্তু এবারের নির্বাচন হচ্ছে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে প্রতিযোগিতামূলক। নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হলে তরুণসহ সব ভোটারই তাদের মতামত জানানোর সুযোগ পাবে। ভোট যখন আসন্ন তখন অনেকেরই চিন্তা শেরপুরের তিনটি আসনের লক্ষাধিক এই ভোটারকে নিয়ে। ১৮ থেকে ২৮ বছর বয়সী এসব ভোটারের বেশির ভাগই প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজেদের সমর্থন জানানোর সুযোগ পেতে যাচ্ছে। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে সবচেয়ে বড় নিয়ামক হয়ে উঠতে পারে এই তরুণ প্রজন্ম।  

ব্যবসায়ী হাজী আবদুস সোবহান বলেন, আওয়ামী লীগ বা বিএনপি যে দলই এবার নির্বাচনে জিতুক, তরুণদের ভোট নিয়ে জিততে হবে। তরুণ ভোটারদের আকৃষ্ট করতে চাইলে অবশ্যই তাদের জন্য বিশেষ কিছু কর্মসূচি ঘোষণা করতে হবে। কারণ আগামী পাঁচ বছর বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তারুণ্যের জন্য অবশ্যই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা রাখতে হবে।  

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads