• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
ads
পোস্টার ছেঁড়া ও হুমকির অভিযোগ

সংগৃহীত ছবি

নির্বাচন

পোস্টার ছেঁড়া ও হুমকির অভিযোগ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে ধানের শীষ প্রতীকের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলাসহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও যশোর-৩ (সদর) আসনে বিএনপির প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিতের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা ও নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।  অন্যদিকে ভোলা ৪ (চরফ্যাশন-মনপুরা) আসনে নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্টের জন্য উসকানিমূলক অপপ্রচার চালাচ্ছে বিএনপি প্রার্থী নাজিম উদ্দিন আলম। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

সাতক্ষীরা : শ্যামনগরে ধানের শীষ প্রতীকের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলাসহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার রাত ও মঙ্গলবার কৃষক লীগ ও যুবলীগের নেতৃত্বে উপজেলার কাশিমাড়ী ইউনিয়নে এসব ঘটনা ঘটে। বিরোধী দলের নেতাকর্মী ও ভোটারদের মধ্যে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে এমন অপতৎপরতা চালাচ্ছে বলে দাবি বিএনপি নেতাদের।

নিজেদের উপর হামলার শংকায় থাকা অভিযোগকারীরা নিজেদের নাম পরিচয় সংবাদ মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করে বলেন, গত সোমবার রাতে কৃষকলীগের সভাপতি এসএম সানাউল্লাহর নেতৃত্বে ১০/১২ জন কাশিমাড়ী বাজারসহ আশপাশের কয়েকটি এলাকায় টানিয়ে দেওয়া ধানের শীষ প্রতীকের পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলে। অপর একটি সুত্র নিশ্চিত করে জানায়, ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আলমগীর কবীর ওরফে পাগলা আলমের নেতৃত্বে ২০/২২ জনের একটি গ্রুপ মঙ্গলবার সকালে রামদা ও লাঠিশোটা নিয়ে গোদাড়া এলাকায় মহড়া দেয়। এসময় বিএনপির পক্ষে পোষ্টার টানাতে হুমকি দেওয়ায় ভোটারদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এ ব্যাপারে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নজরুল ইসলাম বলেন, ‘সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা পোষ্টার ছেঁড়াসহ নানাভাবে কর্মী সমর্থকদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে তিনি দ্রুত পদক্ষেপ নিতে নির্বাচন কমিশনসহ জেলা রিটার্নিং অফিসারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। কৃষক লীগ সভাপতি ও যুবলীগ সভাপতি জানান, তারা এসব ঘটনার সাথে জড়িত না। ওসি আবুল কালাম বলেন, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

যশোর : যশোর-৩ (সদর) আসনে বিএনপির প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিতের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা ও নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে যশোর প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করে বিএনপি। জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু অভিযোগ করেন, সোমবার রাতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ধানের শীর্ষের প্রার্থীর পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। অথচ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কিছুই করতে পারছে না। তিনি বলেন, বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে হুমকি-ধমকি দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ নিরীহ লোকদের ধরে এনে নতুন নতুন মামলা দিচ্ছে।  

সংবাদ সম্মেলনে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খোকন, নগর বিএনপির সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র মারুফুল ইসলাম মারুফ, সম্পাদক মুনির আহমেদ সিদ্দিকী বাচ্চু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চরফ্যাশন (ভোলা) : ভোলা ৪ (চরফ্যাশন-মনপুরা) আসনে নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্টের জন্য উসকানিমূলক অপপ্রচার চালাচ্ছে বিএনপি প্রার্থী নাজিম উদ্দিন আলম। দলের অভ্যন্তরীণ বিরোধ ও নেতাকর্মীদের কাছে নিজের অগ্রহণযোগ্যতা ঢাকতে জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াতে এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে বিএনপি। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে চরফ্যাশন প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন আখন এমন অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, সংস্কারবাদী ও বিশ্বাসঘাতক নাজিম উদ্দিন আলমকে চরফ্যাশন-মনপুরায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করায় তার পরিবর্তে নুরুল ইসলাম নয়নকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানায় এলাকাবাসি। বিএনপির নেতাকর্মীরা এ দাবি নিয়ে সন্ধ্যায় চরফ্যাশনে বিক্ষোভ মিছিলসহ নাজিম উদ্দিন আলমের বাসভবনে হামলা ও ভাংচুর করে। এ ঘটনার একদিন পর চরফ্যাশনে এসে নাজিম উদ্দিন আলম আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের দায়ি করে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। তিনি আরো অভিযোগ করেন, বর্হিরাগত নাজিম উদ্দিন আলমের এ এলাকায় কোন আত্মীয়-স্বজন নেই। নিজের স্বার্থে উস্কানীমূলক অপপ্রচার চালিয়ে শান্তিপ্রিয় মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির পায়তারা করছেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভিপি, পৌর নেতা বাদল কৃষ্ণ দেবনাথ, মনির আহমেদ শুভ্র, ছাত্রলীগ  নেতা হায়াত আলী চৌধুরী রিজভী, আল আমীন মুন্সি প্রমূখ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads