• শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
ads
বিনা প্রতিদন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন আওয়ামী লীগের ৩ জন

ছবি : সংগৃহীত

নির্বাচন

কুমিল্লা তিতাস উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

বিনা প্রতিদন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন আওয়ামী লীগের ৩ জন

  • কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কুমিল্লা তিতাস উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের একক প্রার্থী। নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা ও কুমিল্লা জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আগামী ২১ অক্টোবর এ নির্বাচন হওয়ার কথা ছিলো। ২৯ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। এ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দেন আওয়ামী লীগের পারভেজ হোসেন সরকার ও বি এন পি’র সাদেক হোসেন সরকার। সাদেক হোসেন সরকার মনোনয়ন পত্রের সাথে আয়কর রির্টানের নথি জমা না দেওয়ায় তার মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়। এ নিয়ে তিনি আর আপিল করেননি। এ পদে একক প্রার্থী রইলে পারভেজ হোসেন সরকার। ভাইস চেয়ারম্যান পদে দু’জন প্রার্থী ছিলেন। এরা হলেন উপজেলা যুবলীগের আহব্বায়ক সাইফুল আলম ও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আহম্মদ। সাইফুল আলম ইতোমধ্যে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় একক প্রার্থী রইলেন ফরহাদ আহম্মদ।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দেন তিন জন। এদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাকিলা পারভিনের মনোনয়ন পত্রের সাথে জমা দেওয়া ২৫০ জন ভোটারের তালিকায় ৫ জনের স্বাক্ষরে অমিল পাওয়ায় তার মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়। পরে আপিলেও তার মনোনয়ন পত্র বৈধ হয়নি। অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে নুরুন নাহার পারভিন মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেন। এ পদে একক প্রার্থী রইলেন তিতাস উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন।

তিতাস উপজেলার ১ লাখ ৩৭ হাজার ২ শ’ জন ভোটার এ প্রথম বারের মতো ই ভি এমে ভোট দেওয়ার কথা ছিলো। রির্টানিং কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ২৯ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। এ নির্বাচনে তিনটি পদে তিন জন বৈধ প্রার্থী আছেন। আমরা তাদের বিজয়ী ঘোষণা করবো।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads