• শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৪

ডা.দীপু মনি

ফাইল ফটো

শিক্ষা

বাংলাদেশের প্রথম নারী শিক্ষামন্ত্রী হচ্ছেন দীপু মনি

  • মো. আসিফ উল আলম সোহান
  • প্রকাশিত ০৭ জানুয়ারি ২০১৯

বিশেষ প্রতিনিধি :

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর নারী শিক্ষার অগ্রদূত বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের দেশ পাচ্ছে একজন নারী শিক্ষামন্ত্রী।  নতুন সরকারের নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের কথা রোববার জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম। ৪৬ সদস্যের এই মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী থাকছেন।

এর মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন ডা. দীপু মনি, যিনি বাংলাদেশের ইতিহাসে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়া প্রথম নারী। এর আগে নবম সংসদে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবেও দেশে তিনিই প্রথম নারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন বিশ্বে এখন প্রশংসিত। শেখ হাসিনা এখন বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী (টানা তিনবার) নারী প্রধানমন্ত্রী। একাদশ জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী ছাড়া এখন পর্যন্ত মোট তিনজন নারী মন্ত্রিত্ব পাচ্ছেন বলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব সূত্রে জানা গেছে।

প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পাচ্ছেন বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, তিনি শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন। পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পবির্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হচ্ছেন বেগম হাবিবুন নাহার।

নবম সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হয়ে আলোচনায় আসেন ডা. দীপু মনি।  দায়িত্ব পান সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ( ২০০৯-২০১৪ পর্যন্ত)। দশম সংসদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন তিনি। চাঁদপুর-৩ সদর-হাইমচর আসন থেকে একাদশ সংসদ নিয়ে তিনবার এমপি নির্বাচিত হন ডা. দীপু মনি।

সামাজিক উন্নয়ন এবং প্রশাসনিক ক্ষেত্রে তার অনন্য অবদানের জন্য ইতোমধ্যে তিনি মাদার তেরেসা আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। ২০১৬ সালে আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলে তিনি পুনরায় দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭১ সাল থেকে এখন পর্যন্ত মোট ৩৩ জন এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। তাদের মধ্যে পূর্ণ শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন ২০জন। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সরকারের ছয়জন উপদেষ্টাও ছিলেন এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে। বাকিরা প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান উপদেষ্টা থাকাকালে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন।

এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন যারা :

০১.অধ্যাপক এম ইউসুফ আলী
(মন্ত্রী -২৯-১২-৭১ থেকে ২৬-০১-৭৫)
০২.ডঃ মোজাফফর আহমদ চৌধুরী (মন্ত্রী-২৬-০১-৭৫ থেকে ০৬-১১-৭৫)
০৩.মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান, সেনাবাহিনী প্রধান, ডিসিএমএলএ
(১০-১১-৭৫ থেকে ২৬-১১-৭৫)
০৪.আবুল ফজল (উপদেষ্টা ২৬-১১-৭৫ থেকে ২২-০৬-৭৭)
০৫.সৈয়দ আলী আহসান (উপদেষ্টা-২২-০৬-৭৭ থেকে ২৯-০৬-৭৮)
০৬.কাজী জাফর আহমদ (মন্ত্রী-০৪-০৭-৭৮ থেকে ১১-১০-৭৮)
০৭.আবদুল বাতেন (প্রতিমন্ত্রী-১১-১০-৭৮ থেকে ১৫-০৪-৭৯)
০৮.শাহ্ মোহাম্মদ আজিজুর রহমান (প্রধানমন্ত্রী-১৫-০৪-৭৯ থেকে ১১-০২-৮২)
০৯.তাফাজ্জল হুসেন  খান
(মন্ত্রী ১২-০২-৮২ থেকে ২৪-০৩-৮২)
১০.ড. এ মজিদ খান-উপদেষ্টা-২৬-০৫-৮২ থেকে ১১-১২-৮৩)
১১.ড. আবদুল মজিদ খান-(মন্ত্রী-১১-১২-৮৩ থেকে ০১-০৬-৮৪)
১২.শামছুল হুদা চৌধুরী (মন্ত্রী
০১-০৬-৮৪ থেকে ১৫-০১-৮৫)
১৩.শামছুল হুদা চৌধুরী (মন্ত্রী
০৪-০৮-৮৫ থেকে ১৬-০২-৮৬)
১৪.ডা. এম এ মতিন (মন্ত্রী-১৬-০২-৮৬ থেকে ২৩-০৩-৮৬)
১৫.বিচারপতি এ কে এম নুরুল ইসলাম (মন্ত্রী-২৪-০৩-৮৬ –থেকে ২৫-০৫- ৮৬)
১৬.ডা. এম এ মতিন (মন্ত্রী-২৫-০৫-৮৬ থেকে ০৯-০৭-৮৬)
১৭.মোমিনউদ্দিন আহমেদ (মন্ত্রী-০৯-০৭-৮৬ থেকে ৩০-১১-৮৬)
১৮.মাহবুবুর রহমান (মন্ত্রী ৩০-১১-৮৬ – ২৭-০৩-৮৮)
১৯.আনিছুল ইসলাম মাহমুদ
(মন্ত্রী ২৭-০৩-৮৮ থেকে ১০-১২-৮৮)
২০.শেখ শহীদুল ইসলাম (মন্ত্রী ১০-১২-৮৮ – ০২-০৫-৯০)
২১.কাজী জাফর আহমদ (প্রধানমন্ত্রী-০২-০৫-৯০ থেকে ০৬-১২-৯০)
২২.প্রফেসর জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী (উপদেষ্টা ১০-১২-৯০ থেকে ১৬-০৩-৯১
২৩.ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী (মন্ত্রী ২০-০৩-৯১ থেকে ১৯-০৯-৯১)
২৪.ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার (মন্ত্রী ১৯-০৯-৯১ থেকে ১৯-০৩-৯৬)
২৫.ব্যারিস্টার মো. রফিকুল ইসলাম মিয়া (মন্ত্রী ১৯-০৩-৯৬ থেকে ৩০-০৩-৯৬)
২৬.অধ্যাপক মো. শামসুল হক
উপদেষ্টা (০৩-০৪-৯৬ থেকে ২৩-০৬-৯৬)
২৭.এ এস এইচ কে সাদেক (মন্ত্রী
২৩-০৬-৯৬ থেকে ১৫-০৭-০১)
২৮.এ এস এম শাহজাহান (উপদেষ্টা ১৬-০৭-০১ থেকে ১০-১০-০১)
২৯.ড. এম ওসমান ফারুক (মন্ত্রী ১১-১০-০১ থেকে ২৮-১০-০৬)
৩০.প্রফেসর ড. ইয়াজউদ্দিন আহমেদ (প্রধান উপদেষ্টা ০১-১১-০৬ থেকে ১১-০১-০৭)
৩১.আইয়ুব কাদরী (উপদেষ্টা ১৬-০১-০৭ থেকে ২৭-১২-০৭
৩২.ড. হোসেন জিল্লুর রহমান
(উপদেষ্টা ১০-০১-০৮ থেকে ০৬-০১-০৯)
৩৩.নুরুল ইসলাম নাহিদ (মন্ত্রী ০৬-০১-০৯ থেকে একাদশ নির্বাচন পর্যন্ত )

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads