• রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
ঢাবিতে বিক্ষোভ রাবিতে সমাবেশ

ঢাবির রাজু ভাস্কর্যের সামনে গতকাল বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বিক্ষোভ মিছিল করে বাংলাদেশ সিঙ্গেল সংগ্রাম পরিষদ

ছবি : বাংলাদেশের খবর

শিক্ষা

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

ঢাবিতে বিক্ষোভ রাবিতে সমাবেশ

  • ঢাবি ও রাবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে ‘প্রেম বিরোধী’ বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ সিঙ্গেল সংগ্রাম পরিষদ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এ বিক্ষোভ করেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। এ সময় ‘সিঙ্গেল ছিলাম থাকব, যুগে যুগে লড়ব’ স্লোগান দেন তারা।

পরে সিঙ্গেল সংগ্রাম পরিষদের নেতাকর্মীরা অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে মিছিল নিয়ে কলাভবন, টিএসসি, কার্জন হল ঘুরে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে জড়ো হন। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক সভাপতি এসএম আবদুর রহমান আবির বলেন, আমাদের আজকের এই বিক্ষোভ পুঁজিবাদী প্রেমের বিরুদ্ধে। প্রেমের নামে বৈষম্য চলবে না। সিঙ্গেল সংগ্রাম পরিষদের বর্তমান সভাপতি মাহিন মাহি ইমতু বলেন, আজ থেকে ভালোবাসা দিবস নয়, ১৪ ফেব্রুয়ারি আমরা ‘সিঙ্গেল ডে’ হিসেবে পালন করব। আমরা সব ধরনের অশ্লীল কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে। আমরা প্রেমের নামে প্রতারণা বন্ধ চাই।

অন্যদিকে, ‘তুমি কে আমি কে-বঞ্চিত বঞ্চিত, কেউ পাবে তো কেউ পাবে না-তা হবে না হবে না, দেহ দিয়ে প্রেম নয়-মন দিয়ে প্রেম হয়, প্রেমের নামে প্রহসন-চলবে না চলবে না’— এমন স্লোগানে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেমবঞ্চিত সংঘ। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টুকিটাকি চত্বরে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে এ কর্মসূচি পালন করেন সংঘের নেতাকর্মীরা।

সংঘের সভাপতি মোল্লাহ মোহাম্মদ সাইদ ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল সুমনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন। কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া মোশাররফ হোসাইন শাহিন বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও আমরা মিছিল করেছি। আমরা চাই ভালোবাসা নির্দিষ্ট ব্যক্তির মাঝে না রেখে প্রত্যেকের মাঝে ছড়িয়ে পড়ুক এবং ক্যাম্পাসের সবার মাঝে ভালোবাসা পূর্ণতা পাক। আমরা যারা ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত তারাও যেন নতুন ভালোবাসার মানুষ খুঁজে পাই।

কেন এমন আয়োজন? উত্তরে সংগঠনটির সভাপতি মোল্লাহ সাইদ বলেন, আমেরিকার এক গবেষণায় দেখা গেছে, ৮৮ শতাংশ লোক সিঙ্গেল। এতে প্রমাণিত হয় একটা বড় অংশ প্রেমবঞ্চিত। তাই প্রেমের অধিকারবঞ্চিতদের দাবি আদায়ে আমরা বদ্ধপরিকর।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads