• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
ads
ইবিতে বোটানিক্যাল গার্ডেন উদ্বোধন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী চেরি ফল গাছের চারা রোপনের মধ্যদিয়ে বোটানিক্যাল গার্ডেন উদ্বোধন করেন

ছবি : বাংলাদেশের খবর

শিক্ষা

ইবিতে বোটানিক্যাল গার্ডেন উদ্বোধন

  • ইবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৩ আগস্ট ২০১৯

দুর্লভ ও বিলুপ্তপ্রায় গাছের চারা রোপনের মাধ্যমে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বোটানিক্যাল গার্ডেন তৈরীর উদ্যোগ নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ক্যাম্পাসস্থ লেকের পাশে প্রায় সাড়ে তিন একর জমির উপর ১৪০ প্রজাতির ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপণের মাধ্যমে এই গার্ডেন তৈরী করা হবে।

আজ শনিবার (৩ আগস্ট) দুপুরে ফিতা কেটে এবং চেরি ফল গাছের চারা রোপনের মধ্যদিয়ে এ বোটানিক্যাল গার্ডেনের উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী।

এসময় তিনি বলেন, আমরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে এক এবং ঐক্যবদ্ধভাবে নানামুখি উন্নয়নমূলক কাজ করে চলেছি। এখানে অবকাঠামো উন্নয়নের বিপ্লব সাধিত হয়েছে। এ ক্যাম্পাসকে আমরা সবুজ ক্যাম্পাকে পরিণত করতে চাই। এজন্য আমরা দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। আমরা চিন্তা করেছি আমাদের শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ সময় ক্যাম্পাসে ধরে রাখতে হলে নয়নাভিরাম গ্রীন ক্যাম্পাস তৈরী করতে হবে। সেই প্রেরণা থেকে আমরা লেক, বোটানিক্যাল গার্ডেন তৈরীসহ বহুমুখি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। বৈশ্বিক উষ্ণতা এবং জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব থেকে এ বিশ্বকে রক্ষার জন্য প্রতি বছর প্রতিটি মানুষকে অন্ততঃ ১টি করে গাছ লাগাতে হবে। তিনি বলেন, আমরা আমাদের জীববৈচিত্র রক্ষা করতে চাই। এ গার্ডেনের মাধ্যমে আমাদের নব প্রজন্মরা বিভিন্ন গাছের সাথে পরিচিত হতে পারবে। এ গার্ডেনটি শুধু সৌন্দর্যবর্ধন নয় বরং এটি আমাদের কিছু বিভাগের গবেষণার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে।

ইবির সৌন্দর্যবর্ধন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান বলেন, ‘আমাদের এই বোটানিক্যাল গার্ডেন কেবল সৌন্দর্যবর্ধনের কাজই করবে না বরং আমাদের বিজ্ঞানের শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের গবেষণায় কার্যকর ভূমিকা রাখবে।’

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা বলেন, ‘আমাদের প্রশাসনিক দায়িত্বের মেয়াদ আর মাত্র ১ বছর থাকলেও আমাদের পরবর্তী প্রজন্মরা যেন স্বাচ্ছন্দে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক কর্মকান্ড শেষ করতে পারে সে লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্যে নিয়েই আমরা দীর্ঘ মেয়াদী কাজ করে চলেছি। তারই প্রেক্ষাপটে আজকের এই বোটানিক্যাল গার্ডেন তৈরীর স্বপ্ন আমরা দেখেছি।’

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সৌন্দর্যবর্ধন কমিটির সদস্য-সচিব ও প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) আলিমুজ্জামান টুটুলের সঞ্চালনায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মন, প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ড. আনিছুর রহমান, শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, ইবিসাসের সভাপতি ইমরান শুভ্র, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির জীবন প্রমুখ।

উদ্বোধনী আলোচনা শেষে ফিতা কেটে এবং চেরিফল গাছের চারা রোপন করেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানে ইবি সৌন্দর্যবর্ধন কমিটির সদস্য-সচিব ও প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) আলিমুজ্জামান টুটুল তাঁর ‘গ্রীন চাইন্ড’ সংগঠনের পক্ষ থেকে ক্যাম্পাসে ১ লাখ টাকার বিভিন্ন গাছের চারা রোপনের ঘোষণা দেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads