• মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬
ads
ভিসির পদত্যাগের পর বশেমুরবিপ্রবি ক্যাম্পাসে আনন্দের বন্যা

ছবি: বাংলাদেশের খবর

শিক্ষা

ভিসির পদত্যাগের পর বশেমুরবিপ্রবি ক্যাম্পাসে আনন্দের বন্যা

  • গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০১ অক্টোবর ২০১৯

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েরে সদ্য পদত্যাগকারী ভিসি অধ্যাপক ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগের প্রেক্ষিতে চলমান আন্দোলন স্থগিত করেছে শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় প্রেস ব্রিফিং করে এ ঘোষণা দেয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। টানা ১২দিন আন্দোলনের মুখে ভিসির পদত্যাগে আজও শিক্ষার্থীদের মাঝে ছিল আনন্দের বন্যা। দ্রুত নতুন ভিসি নিয়োগের মাধ্যমে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনার দাবী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের।

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগের দাবীতে টানা ১২ দিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছিল শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের মুখে গতকাল সোমবার দুপুরের পর ভিসি খোন্দকার নাসিরউদ্দিন পদত্যাগপত্র জমা দেন। তিনি পদত্যাগ করায় আজ মঙ্গলবার সকালে সংবাদ সম্মেলন করে আন্দোলনরত শিক্ষরার্থীরা।বিশ্ববিদ্যালয়ের জয় বাংলা চত্বরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থী মো. আল গালিব ভিসির পদত্যাগের বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জা‌রি না হওয়া পয্যন্ত আন্দোলন স্থ‌গিতের ঘোষণা দেন।

ভিসির পদত্যাগের খবরে শিক্ষার্থীদের মাঝে আজ ছিল আনন্দের বন্যা। তারা একে অপরকে রং মেখে, মিছিল করে যে যার মত আনন্দ উল্লাস করেছে।বাজনার তালে তালে নেচে গেয়েও উল্লাসে ফেটে পড়ে। তবে আন্দোলন স্থল ছিল পুরো ফাঁকা। ছিল না কোন শ্লোগান। নতুন ভিসির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ ফিরে আসবে এমনটাই মনে করছে শিক্ষার্থীরা।

শুধু ভিসির অপসারণ বা পদত্যাগ নয়, দুর্নীতি ও অনিয়মের বিচার করার পাশাপাশি তার সহযোগীদেরও বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষকেরা।

বশেমুরবিপ্রবি রেজিস্ট্রার নূরউদ্দিন আহম্মেদ বলেছেন, আন্দোলন স্থাগতি হবার পরও শিক্ষার্থীদের ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তার বিষয়ের উপর বিশেষ নজর দেয়া হয়েছে। নতুন ভিসি নিয়োগের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে সু-সম্পর্ক গড়ে ওঠার পাশাপশি শিক্ষার পরিবেশ বজায় থাকবে এমনটাই প্রত্যাশা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads