• মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৫
ads
পাঁচ বছরে ১ কোটি ৯০ লাখ বিদ্যুৎ সংযোগ

ছবি : সংগৃহীত

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

পাঁচ বছরে ১ কোটি ৯০ লাখ বিদ্যুৎ সংযোগ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ জুলাই ২০১৯

গত ৫ বছরে প্রায় ১ কোটি ৯০ লাখ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে সরকার। দেশে বর্তমানে বিদ্যুতের দৈনিক চাহিদা প্রায় ১২-১৩ হাজার মেগাওয়াট। এই চাহিদা মেটাতে ভারতের পর এবার নেপাল থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। গতকাল রোববার চট্টগ্রাম-১১ আসনের এম আবদুল লতিফ ও কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মো. আফজাল হোসেনের আলাদা প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতার বিষয়ে ২০১৮ সালের ১০ আগস্ট বাংলাদেশ-নেপাল জিটুজি (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়। ৩ ও ৪ ডিসেম্বর নেপালের কাঠমান্ডুতে বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতাসংক্রান্ত নেপাল-বাংলাদেশ জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ ও জয়েন্ট স্ট্রিং কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। চলতি বছরের ২০ ও ২১ জুন কক্সবাজারে এই কমিটির দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নেপাল থেকে বিদ্যুৎ আমদানির বিষয়ে তিনি বলেন, ভারতের জিআরএম কর্তৃক নির্মিতব্য নেপালের ৯০০ মেগাওয়াট আপার কার্নালি হাইড্রো পাওয়ার প্রজেক্ট থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বাংলাদেশে আমদানির জন্য বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি চূড়ান্ত করা হচ্ছে। বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে উভয় দেশের সারপ্লাস বিদ্যুৎ আমদানি-রপ্তানি সম্ভাব্যতার বিষয়টি পর্যালোচনা করা হচ্ছে। সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে নেপালে জল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ অথবা বিনিয়োগের মাধ্যমে উৎপাদিত বিদ্যুৎ বাংলাদেশে আমদানি অথবা ডমেস্টিক মার্কেটসহ বাণিজ্যিকভাবে বিক্রয়ের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খ. মমতা হেনা লাভলীর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে বিদ্যুতের দৈনিক চাহিদা প্রায় ১২-১৩ হাজার মেগাওয়াট। বর্তমানে বিদ্যুতের উৎপাদন সক্ষমতা ক্যাপটিভ ও নবায়নযোগ্য জ্বালানিসহ ২১ হাজার ৬২৯ মেগাওয়াট। ভারত থেকে ১ হাজার ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ইতোমধ্যে আমদানি করা হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads