• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬
ads
চান্দিনায় ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

কুমিল্লার চান্দিনায় ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করা হয়

ছবি : বাংলাদেশের খবর

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

৩ মাস পর ফের অভিযান

চান্দিনায় ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

  • চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কুমিল্লার চান্দিনায় ৫টি গ্রামের ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইনে তিন মাস পর ফের উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লি:।

আজ বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে দিন ব্যাপী উপজেলার কুটুম্বপুর ও বাখরাবাদ গ্রামে ওই অভিযান চলে। এসময় কুটুম্বপুর সামিটপাওয়ার প্লান্টের পিছনের বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লি: এর ৬ ইঞ্চি পাইপ ছিদ্র করে অবৈধ গ্যাস সংযোগ স্থান থেকে প্রায় ২ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদ করা হয়। এতে ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইনের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাঈমা ইসলাম, চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আবুল ফয়সল, বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লি: এর কর্মকর্তা ও র‌্যাব সদস্যরা।

এর আগে চলতি বছরের মে মাসে বিভিন্ন পত্রিকায় চান্দিনায় অবৈধ গ্যাস লাইন সংযোগের সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি নজরে আসে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। পত্রিকার ওই সংবাদের পর গত ১৭ জুন অভিযানে আসে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লি: এর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ওই অভিযানে ২০ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন এর সংযোগ বিচ্ছিন্ন করলেও অবৈধ লাইন উচ্ছেদ না করায় গত ২৮ জুন রাতে আবারও অবৈধ সংযোগটি প্রদান করে ওই গ্যাস কোম্পানীর কথিত ঠিকদার শাহজাহান। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করার পর ১৮সেপ্টেম্বর (বুধবার) ফের উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়।

বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানীর উপ-মহাব্যবস্থাপক (এসএন্ডএস) মো. হেলাল উদ্দিন শিকদার জানান, গ্যাস চোর শাহজাহান আমাদের কোম্পানীর কোন ঠিকাদার নয়। তার যন্ত্রণায় রীতিমত আমরা অতিষ্ঠ হয়ে যাচ্ছি। তার বিরুদ্ধে আমরা থানায় মামলা করেছি। তিন মাসের মধ্যে একই স্থানে ২ বার উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছি। ২০ কিলোমিটার অবৈধ লাইন গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পাশাপাশি ১০ কিলোমিটার লাইন উচ্ছেদ ও বিভিন্ন স্থানে ছিদ্র করে দিবো। পর্যায়ক্রমে বাকি অংশ উচ্ছেদ করা হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads