• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬
ads
পৃথিবীর নিকটতম সুপার আর্থের সন্ধান

পৃথিবীর নিকটতম সুপার আর্থের সন্ধান

ছবি : ইন্টারনেট

পরিবেশ বিজ্ঞান

পৃথিবীর নিকটতম সুপার আর্থের সন্ধান

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৬ নভেম্বর ২০১৮

আমাদের পৃথিবীর মতোই আরেকটি পৃথিবী আছে ‘কাছেপিঠেই’। বার্নার্ড’স নামের একটি তারকাকে কেন্দ্র করে ঘোরা এই ‘সুপার আর্থ’ সম্পর্কে গত বুধবার প্রকাশিত হয়েছে একটি গবেষণা নিবন্ধ।

সেখানে দাবি করা হয়েছে, সূর্যের দ্বিতীয় নিকটতম তারকাটির একটি গ্রহের সন্ধান মিলেছে। সেটি আকারে ও স্বভাবে অনেকটাই পৃথিবীর মতো। গ্রহটির এক বছর হয় ২৩৩ দিনে। অর্থাৎ বার্নার্ড’স স্টার বি নামে গ্রহটি তার তারকার চারপাশে একবার ঘুরতে ২৩৩ দিন সময় নেয়।

গবেষকরা বলছেন, পৃথিবী থেকে সূর্যের যে দূরত্ব, সে তুলনায় বার্নার্ড’স স্টার বি তার তারকা বার্নার্ড’স থেকে অনেক কাছে অবস্থিত। তবে আমাদের পৃথিবী সূর্য থেকে যে শক্তি পায় বার্নার্ড’স স্টার বি পায় তার মাত্র দুই শতাংশ। এ কারণেই  গ্রহটির তাপমাত্রা খুবই কম।

লাল রঙের এই বামনাকৃতি গ্রহটির আকার ও ওজন পৃথিবীর প্রায় তিনগুণ বেশি। অর্থাৎ গ্রহটি পৃথিবীর চাইতে আকারে যেমন তিনগুণ বেশি তেমনি ওজনের ক্ষেত্রেও সেটি। আকার ও ওজনের হারের এই তফাৎ গ্রহ দুটির ভরের সাদৃশ্য প্রকাশ করে বলে দাবি গবেষকদের।

গবেষকরা বলছেন, সৌরজগতের নিকটতম তারকামণ্ডল প্রক্সিমা সেন্টরাই থেকে অল্প কিছু দূরে অবস্থিত সেটি। সেখান থেকে মাত্র দুই আলোক বর্ষ দূরে আর আমাদের সৌরজগৎ থেকে মাত্র ছয় আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত এই নতুন সুপার আর্থ।

নতুন সুপার আর্থ নিয়ে গবেষকরা বেশ উত্তেজিত হলেও সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব যে অসম্ভব তা মেনে নিয়েছেন গবেষকরা। ক্যাটালোনিয়ার ইনস্টিটিউট অব স্পেস স্টাডিসের গবেষক ইগনাস রিবাস জানিয়েছেন, সুপার আর্থের তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে ২৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ফলে পানি ও গ্যাস সবই এখানে ঘনীভূত অবস্থায় রয়েছে।

প্রসঙ্গত, সৌরজগতের বাইরে যেসব গ্রহ তারকার চারপাশে পৃথিবীর মতোই ঘোরে সেগুলোকে বলা হয় এক্সোপ্ল্যানেট। নতুন গ্রহটি এমনই একটি এক্সোপ্ল্যানেট। একে বলা হচ্ছে নতুন সুপার আর্থ। গত বছরও এমন একটি সুপার আর্থ খুঁজে পেয়েছিলেন গবেষকরা। এলএইচএস ১১৪০ বি নামের সেই সুপার আর্থটি পৃথিবী থেকে ৩৯ আলোকবর্ষ দূরে। সেটিতে প্রাণের অস্তিত্ব থাকার বিষয়ে বেশি আশাবাদী গবেষকরা।

এলএইচএস ১১৪০ বি আমাদের পৃথিবীর চেয়ে প্রায় দেড়গুণ ব্যাস এবং সাড়ে ছয়গুণ ভর আছে। আর এর উপরের বায়ুমণ্ডল নিয়ে গবেষণায় এটা দেখা গেছে এতে তরল, কঠিন এবং বায়বীয় তিন অবস্থাতেই পানি থাকতে পারে। তাছাড়া পৃথিবীর মতো চৌম্বকীয় ক্ষেত্র আছে। এ কারণে গবেষকদের দাবি, পৃথিবীর বাইরে যদি প্রাণের অস্তিত্ব কোনো গ্রহে থাকে তবে অবশ্যই সেটা এলএইচএস ১১৪০বি সুপার আর্থ। বার্নার্ড’স স্টার বি নয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads