• বুধবার, ৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
করোনায় স্পেনে বেকারত্বের সংখ্যা ৩৫ লাখ

প্রতীকী ছবি

ইউরোপ

করোনায় স্পেনে বেকারত্বের সংখ্যা ৩৫ লাখ

  • আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১১ এপ্রিল ২০২০

করোনাভাইরাসের কারণে ভেঙে পড়েছে স্পেনের অর্থনীতি। দেশটিতে করোনার কারণে বেকার হয়ে পড়েছে ৩৫ লাখ মানুষ। বৃহস্পতিবার দেশটির সরকার জানিয়েছে, শুধু মার্চেই বেকার হয়েছে আট লাখ মানুষ। খবর ইউরাক্টিভের।

স্পেনের শ্রমমন্ত্রী ইয়োলান্ডা ডিয়াজ বলেছেন, দেশজুড়ে লকডাউনের কারণে মার্চ মাসে চাকরি হারিয়েছে আট লাখ ৩৪ হাজার মানুষ। লকডাউনের কারণে দেশটিতে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত জরুরি সেবাকর্মী ছাড়া সবাইকে ঘরে থাকতে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, স্পেনে বেকার লোকের সংখ্যা তিন লাখ বেড়েছে। বেকারত্বের সংখ্যার দিক দিয়ে এটা ঐতিহাসিক ফিগার নয় কিন্তু মাসিক ভিত্তিতে এটি বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন পর্যন্ত ৩৫ লাখ মানুষ বেকার হিসেবে নিবন্ধন করেছে বলেও জানান তিনি।

করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সার্ভিস সেক্টর। বার ও রেস্টুরেন্ট সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বেকার হয়ে পড়েছে দুই লাখ ৬ হাজার ১৬ জন। এরপর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেকার হয়েছে নির্মাণখাতে। সেখানে বেকারত্ব বেড়েছে ২২.৯২ শতাংশ। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে কৃষিখাত। এই খাতে ৬ হাজার ৫২০ বেকার হয়েছে, যা মোট বেকার হওয়া লোকের ৪.২৬ শতাংশ।

ডিয়াজ বলেন, ভাইরাসটির সুনির্দিষ্ট কোনও লিঙ্গের ওপর প্রভাব নেই কিন্তু শ্রমবাজার খুবই লিঙ্গ পক্ষপাতীমূলক। ২০ লাখ নারী বেকার হয়ে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু দেশগুলোর তালিকায় স্পেনের অবস্থান তৃতীয়। আর ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির পর সবেচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে স্পেনে। সেখানে করোনায় এখন পর্যন্ত ১৬ হাজার ৮১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৫৮ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্তের দিক দিয়ে যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads