• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
সুস্থ কিডনির জন্য খাবার

ছবি : সংগৃহীত

স্বাস্থ্য

সুস্থ কিডনির জন্য খাবার

  • ফিচার ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২০ ডিসেম্বর ২০১৮

কিডনি নিয়ে অনেকের দুশ্চিন্তার শেষ নেই। যাদের ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যায়, তাদের অবশ্যই তা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে গেলে কিডনি বিকল হতে পারে। আবার এমনসব খাবার রয়েছে যা কিডনির জন্য উপকারী কিন্তু শরীরে ইউরিক অ্যাসিড তৈরি করতে পারে। কিডনি সুস্থ রাখতে পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাসের বিকল্প নেই। কিডনির জন্য উপকারী ও অপরিহার্য ৭টি খাদ্যাভ্যাস- :

১. কিডনির সমস্যা থাকলে, আপনার শরীরে প্রয়োজন ফসফরাসের মাত্রা কম এবং প্রোটিন জাতীয় খাবার। প্রোটিনজাতীয় খাবারের অন্যতম উৎস ডিমের সাদা অংশ, যাতে ফসফরাসের পরিমাণ কম আছে।

২. সবজির মধ্যে ফুলকপি কিডনির জন্য অত্যন্ত উপকারী। ফুলকপি কেটে তাতে গোলমরিচ ও লবণ মিশিয়ে সেদ্ধ করা বা স্বাস্থ্যসম্মত পদ্ধতিতে রান্না করা যেতে পারে।

৩. কিডনির জন্য বহু স্তরবিশিষ্ট ফাইটোকেমিক্যালসের অন্যতম উৎস বাঁধাকপি অপরিহার্য সবজি। শরীর ও ত্বকের কোষকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা, উজ্জ্বল ত্বকের জন্য বাঁধাকপি বরাবরই অপ্রতিদ্বন্দ্বী একটি সবজি।

৪. মাছে রয়েছে প্রদাহ রোধকারী তেল, ওমেগা-৩, যা কিডনির সমস্যা কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। মাছ প্রোটিনের একটি ভালো উৎস এবং যে কোনোভাবেই মাছ খাওয়া যায়।

৫. জুস কিডনি বিকল হওয়া প্রতিরোধ করে, কিডনির স্বাস্থ্য ভালো করে। আর ফল কেনার সময় একটু সতর্কভাবে বাছাই করে নেওয়াটা জরুরি। যদি সেটা সম্ভব হয়, তাহলে ফলের জুস বানিয়ে পান করতে বাধা নেই।

৬. লাল ক্যাপসিকাম কিডনি সমস্যায় আক্রান্তদের জন্য অন্যতম পাথেয়।

৭. পানি একটি মহৌষধ। শরীরের অধিকাংশ বর্জ্য অপসারণ করে, কিডনির ওপর অতিরিক্ত চাপ প্রতিরোধ করে এবং রক্ত পরিষ্কার রাখে পানি। প্রতিদিন নিয়মিত কমপক্ষে ৭-৮ গ্লাস পানি পান করুন। অতিরিক্ত পরিশ্রম হলে আরো ৩-৪ গ্লাস বাড়িয়ে নিতে পারেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads