• সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
পাশে আছে স্বাস্থ্য বাতায়ন

পাশে আছে স্বাস্থ্য বাতায়ন

সংগৃহীত ছবি

স্বাস্থ্য

পাশে আছে স্বাস্থ্য বাতায়ন

  • এস এম মুকুল
  • প্রকাশিত ১৮ এপ্রিল ২০১৯

স্বাস্থ্যসেবা এখন আপনার হাতের মুঠোয়। দেশের যে কোনো প্রান্তের নাগরিকরা এ সেবা পাবেন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে যে কোনো অপারেটরের মোবাইল ফোন বা ল্যান্ডফোন থেকে এক বাষট্টি তেষট্টি (১৬২৬৩) নম্বরে কল দিলে কলসেন্টারে নিয়োজিত চিকিৎসকরা তাৎক্ষণিক পরামর্শ দেবেন। ২৪ ঘণ্টাই অপেক্ষায় থাকেন চিকিৎসকরা। সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্য অধিদফতরের এমআইএস বিভাগ কর্তৃক পরিচালিত এটি একটি সেবা কার্যক্রম। দিনরাত ২৪ ঘণ্টা আপনার সেবায় নিয়োজিত এই স্বাস্থ্য বাতায়নের হেল্পলাইন ১৬২৬৩-এ কল করে আপনি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যে কোনো বিষয়ে সরাসরি ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন। আপনি পেতে পারেন সরকারি হাসপাতাল, ডাক্তারের তথ্য কিংবা স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক অন্যান্য যে কোনো তথ্য অথবা ফোন নম্বর। এরই পাশাপাশি আপনি সরকারি-বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা অথবা হাসপাতাল বিষয়ক আপনার কোনো অভিযোগ কিংবা পরামর্শ থাকলেও এই নম্বরে জানাতে পারেন। আপনার অভিযোগ যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেওয়া হবে। আবার আপনাকেও জানানো হবে আপনার অভিযোগের ব্যাপারে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আরো ভালো খবরটি হচ্ছে স্বাস্থ্য বাতায়ন কোনো বাণিজ্যিক সেবা নয়। এখানে ফোন করতে মোবাইল ফোনের স্বাভাবিক বিলের অতিরিক্ত খরচও নেই।

স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবাটির পরিচালনায় রয়েছে সিনেসিস আইটি লিমিটেড। এর অর্থায়নে রয়েছে ইউকেএইড। স্বাস্থ্য বাতায়ন নম্বর ১৬২৬৩-এ যত কল এসেছে তার প্রায় ৮০ শতাংশ কলের চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন ৫ হাজার থেকে ৫০ হাজার কল প্রদানকারীকে সেবাদানের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। জানা গেছে, স্বাস্থ্য বাতায়ন নামে এই সেবাটি চালু হওয়ার মাত্র আট মাসেই ১৩ লাখের বেশি মানুষকে সেবা প্রদান করা হয়েছে।

 

স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ নম্বরের উল্লেখযোগ্য সেবাগুলো হলো

সপ্তাহের সাত দিন ২৪ ঘণ্টাই অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ প্রদান।

দেশের যে কোনো হাসপাতাল, ক্লিনিক এবং ডাক্তারদের প্রয়োজনীয় তথ্য ও ফোন নম্বর প্রদান। নিকটবর্তী অ্যাম্বুলেন্সের জরুরি তথ্য ও বুকিং সুবিধা। স্বাস্থ্যসেবাবিষয়ক যে কোনো অভিযোগ ও পরামর্শ জানানোর ব্যবস্থা এবং প্রতিকারের পর তা জানিয়ে দেওয়া। যে কোনো দুর্ঘটনার তথ্য গ্রহণ ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো। এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক এক বিবৃতিতে বলেন, এই সেবা চালু হওয়ার পর এ পর্যন্ত ১৫ লাখের বেশি মানুষকে সেবা প্রদান করেছে। এখন প্রতিদিন পাঁচ হাজারের মতো কল আসছে। ৫০ হাজার কলের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এখানকার চিকিৎসকরা ২৪ ঘণ্টাই ফোনকলের জন্য অপেক্ষায় থাকেন। প্রতিটি কল গুরুত্বের সঙ্গে দেখে সঙ্গে সঙ্গেই পরামর্শ দেওয়া হয়।

 

ফোন করুন এক বাষট্টি তেষট্টি নম্বরে

চব্বিশ ঘণ্টা বাংলাদেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে ফোনে ডাক্তারের পরামর্শ পেতে কল করুন ১৬২৬৩ নম্বরে। স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ সেবা সম্পর্কে আপনার আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও পরিচিত জনকে জানান। স্বাস্থ্য বাতায়ন নিয়ে এলো দেশের সর্বনিম্ন কলরেটে ফোনেই ডাক্তারের সেবা। ১৬২৬৩ ডায়াল করার পর, আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ে পরামর্শের জন্য সরাসরি ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলতে ০ (শূন্য) চাপুন। আপনি যদি আপনার নিকটস্থ সরকারি হাসপাতাল, ডাক্তারের তথ্য কিংবা স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ে কোনো কিছু জানতে চান, তাহলে ১ চাপুন। আপনি যদি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক কিংবা অন্যান্য সরকারি স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে কোনো অভিযোগ জানাতে চান, তাহলে ২ চাপুন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবাটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ৩ চাপুন। স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবা সম্পর্কিত কোনো পরামর্শ অথবা অভিযোগ জানাতে ৮ চাপুন। এই স্বাস্থ্য বাতায়নের হেল্পলাইন নম্বর ১৬২৬৩ (এক বাষট্টি তেষট্টি)-তে কল করে আপনি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যে কোনো বিষয়ে সরাসরি ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন। এই হেল্পলাইন দিনরাত ২৪ ঘণ্টা আপনার সেবায় নিয়োজিত।

 

আছে ফেসবুক পেজ : কলব্যাক করা হয়

স্বাস্থ্য বাতায়নের রয়েছে একটি ফেসবুক পেজ (লিংক : যঃঃঢ়ং://.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/ঝযধংঃযড়ইধঃধুড়হ)। এখানে নাম, বয়স, মোবাইল নম্বরসহ কারো স্বাস্থ্যসংক্রান্ত সমস্যা জানালে ১৬২৬৩ নম্বর থেকে প্রতিনিধি নিজেই কলব্যাক করে স্বাস্থ্য পরামর্শ দেন। এখানেও পাওয়া যায় স্বাস্থ্যবিষয়ক নানা সমস্যা সমাধানের টিপস। জানানো যাবে অভিযোগ। এ ছাড়া +৮৮ ০১৫১১৩ ১৬২৬৩ নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমেও জনগণের স্বাস্থ্য সমস্যা ও অভিযোগের কথা জানানো যাবে।

 

কল সেন্টারে অ্যাম্বুলেন্স সেবা

গুরুতর অসুস্থ রোগী পরিবহনে ফোনে একটি কল দিলেই অ্যাম্বুলেন্স সেবা পাওয়া যাবে। যে কোনো মোবাইল অপারেটর থেকে ১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করলে বাড়ির পাশে অথবা কাঙ্ক্ষিত জায়গায় অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছে যাবে। মানুষ চব্বিশ ঘণ্টা যাতে অ্যাম্বুলেন্স সেবা পায়, সে লক্ষ্যে এ উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ সেবা বাস্তবায়নের জন্য দেশের সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ের অ্যাম্বুলেন্সের তথ্য তালিকাভুক্তির কাজ শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের ওয়েবসাইটের  যঃঃঢ়://১৬২৬৩.ফমযং.মড়া.নফ/ধসনঁষধহপব/ লিংকে গিয়ে অ্যাম্বুলেন্স তালিকাভুক্ত করার জন্য সরকারি-বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স মালিক ও কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করেও এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে।  জানা গেছে, এই সেবা আরো বিস্তারের মাধ্যমে দেশের একমাত্র ওয়ান স্টপ হেলথ সলিউশন করার কাজ চলছে। সেবা পরিচালনায় সহায়তা করছে যুক্তরাজ্য সরকারের আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থা ডিএফআইডির। সিনেসিস আইটি লিমিটেড নামে একটি মোবাইল স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবাটির ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads