• বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬
ads
করোনায় ধূমপায়ীদের ঝুঁকি বেশি

ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্য

করোনায় ধূমপায়ীদের ঝুঁকি বেশি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৯ মার্চ ২০২০

আপনি ধূমপায়ী হলে আজই ধূমপান ছেড়ে দিন। অন্যথায় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে মৃত্যুর ঝুঁকিতে রয়েছেন আপনি। গবেষকরা বলছেন, ধূমপান ফুসফুস রোগের কারণ। এর কারণ হিসেবে তারা বলেছেন, ধূমপান ফুসফুস ও হৃদপিণ্ডের কার্যক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এতেই মৃত্যুঝুঁকি বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

করোনাভাইরাসের প্রাথমিক উপসর্গ হলো হালকা জ্বর, সর্দি ও কাশি। তবে এটি ফুসফুসকে আক্রমণ করে বসলে ঝুঁকি রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ফুসফুসের কার্যকারিতা ধরে রাখতে ধূমপান ছেড়ে দেয়া উচিত।

গবেষণায় দেখা গেছে, অতীতের সার্স ও চলমান করোনাভাইরাসের মতো মহামারিতে শিশুরা অপেক্ষাকৃত কম আক্রমণের শিকার হয়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রমণের শিকার হয়েছেন বয়স্করা। এর সঠিক কারণ এখনও জানতে পারেননি গবেষকরা।

গবেষকরা এর সম্ভাব্য কারণ হিসেবে মনে করছেন, ধূমপান ও দূষণের কারণে এদের তরতাজা ফুসফুস এখনও সক্ষমতা হারায়নি। এবং এ বয়সে তাদের ডায়াবেটিস ও ক্রোনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিসেসের (সিওপিডি) মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও কম।

অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস’স কিরবি ইনস্টিটিউটের বায়োসিকিউরিটি বিভাগের প্রধান রেইনা মকন্টায়ার। তিনি বলেন, ‘যাদের ফুসফুসজনিত সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য এ ভাইরাস খুবই নির্দয়।’

শুধু ধূমপান নয়, যেসব দমকল কর্মী দীর্ঘদিন ধরে দাবানল নেভানোর কাজ করছেন (বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়া), তাদের জন্যও দুঃসংবাদ দিচ্ছে এ ভাইরাস।

বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল অস্ট্রেলিয়াকে রেইনা মকন্টায়ার বলেন, ‘যারা দাবানল নেভানোর সময় ফুসফুসজনিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এবং এখনও সুস্থ হননি, তাদের করোনাভাইরাসে অপেক্ষাকৃত বেশি আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

সূত্র : ডেইলি মেইল

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads