• শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
হাসপাতালে মাইলি সাইরাস

ফাইল ছবি

হলিউড

হাসপাতালে মাইলি সাইরাস

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১১ অক্টোবর ২০১৯

ক্যারিয়ারে সবসময়ই সফলতার ডানায় উড়েছেন মাইলি সাইরাস। হঠাৎ মার্কিন পপ গায়িকা মাইলি সাইরাস অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মাইলি কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এতেই সত্যতা মেলে তার অসুস্থতার।

তবে কী রোগে আক্রান্ত হয়েছেন, তা স্পষ্ট করে বলেননি এই তারকা। মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদন বলছে, টনসিল সমস্যায় ভুগছেন এই পপ গায়িকা। ভক্তদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। অসুস্থতার ফলে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তার আগামী শো।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কিছুদিন আগে অভিনেতা লিয়াম হেমসওর্থের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে মাইলির। দুজনের প্রেম শুরু হয়েছিল ২০০৯ সালে। এরপর ২০১৮ সালে বিয়ে তাদের। গত আগস্ট মাসে মাইলি জানান, দুজনের সম্পর্ক ঠিক আগের মতো নেই। দুজন এখন আলাদা থাকছেন। হয়ে গেছে বিচ্ছেদ।

বিশ্বখ্যাতি থাকলেও মাইলি কখনো স্বাভাবিক জীবনযাপন করেননি। মার্কিন কণ্ঠশিল্পী, অভিনেত্রী এবং লেখিকা- এই তিন ভুবনেই খ্যাতি ছড়িয়েছেন মাইলি। প্রমাণ করেছেন তিনি এই তিন ক্ষেত্রেই সেরা।

ডিজনি চ্যানেল সিরিজের ‘হানা মন্টানা’য় নাম ভূমিকায় অভিনয় থেকেই খ্যাতির সূচনা। এরপর ২০০৬ সালে তার গানের সিডি প্রকাশিত হয়। তবে সংগীতে পেশাদার গায়িকা হিসেবে তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘মিট মাইলি সাইরাস’। এরপর দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘ব্রেকআউট’ মুক্তি পায়। আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি মাইলিকে। নিজেকে বহুমাত্রিক চরিত্রে ঢেলে গড়েছেন একের পর এক রেকর্ড। খ্যাতি আর অর্থ দুদিক দিয়েই মাইলি অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠেন।

২০০৮ সালে টাইম ম্যাগাজিনের তালিকায় বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০০ জন ব্যক্তির তালিকায় নিজের অস্তিত্বের জানান দেন সাইরাস। এ ছাড়া ফোর্বস ম্যাগাজিনের ‘সেলিব্রিটি ১০০’ তালিকায় ২০০৮ সালে ২৫০ লাখ ডলার আয়ের জন্য তিনি ৩৫তম স্থান অর্জন করেন। মাইলির বাবা-মা তার নাম দিয়েছিলেন ডেসটিনি হোপ। কারণ তাদের আশা ছিল মেয়ে জীবনে অনেক সাফল্য পাবে। এ জন্য ডাকনাম রাখেন ‘মাইলি’। কারণ ছেলেবেলা থেকেই সে সব সময়ই হাসত।

সাইরাস হেরিটেজ মিডল স্কুলে শিক্ষাজীবন শুরু করেন। স্কুলে তিনি চিয়ারলিডার ছিলেন। মাইলি তার বাবা-মায়ের খামারবাড়িতে বড় হয়েছেন। মাত্র ৯ বছর বয়সে অভিনয়ে আগ্রহী হয়ে ওঠেন মাইলি। কানাডার টরন্টোতে অবস্থিত আর্মস্ট্র অ্যাক্টিং স্টুডিওতে প্রশিক্ষণ নিতেও শুরু করেন। অতিথি অভিনেতা হিসেবে কাইলি নামের এক মেয়ের চরিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads