• বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬
ads

হলিউড

৫০ লাখ ডলার অনুদান দিলেন রিয়ান্না

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৪ মার্চ ২০২০

বারবাডোজের গায়িকা রিয়ান্নার দাদা-দাদির নাম লিওনেল ও ক্লারা। তাদের নামে একটি ফাউন্ডেশন আছে ৩০ বছর বয়সি এই তারকার। এর মাধ্যমে অসহায় মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসেন তিনি।

এবার করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে অভাবের বেড়াজালে আটকে পড়া মানুষের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন রিয়ান্না। বিশ্বব্যাপী এই মহামারীর বিরুদ্ধে লড়তে তার গড়া ক্লারা লিওনেল ফাউন্ডেশন (সিএলএফ) ৫০ লাখ ডলার অনুদান দিয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোভিড-১৯ সলিডারিটি রেসপন্স ফান্ড, ফিডিং আমেরিকা, ডিরেক্ট রিলিফ, পার্টনার্স ইন হেলথ ও ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটিসহ বেশ কয়েকটি সংস্থার সঙ্গী সিএলএফ।

সিএলএফের নির্বাহী পরিচালক জাস্টিন লুকাস এক বিবৃতিতে বলেন, ‘প্রান্তিক ও নিম্নবিত্ত জনগোষ্ঠীর সুরক্ষার এখন খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ করোনা ভাইরাস মহামারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে তারাই।’

জাস্টিন লুকাস জানান, যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন সংস্থা নিম্নবিত্ত ও সুবিধাবঞ্চিত আর প্রবীণদের সেবা দিচ্ছে। হাইতি ও মালাবির মতো দেশগুলোতে করোনা পরীক্ষা ও সঠিক পরিচর্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

বিশ্ব পপ মিউজিকের আলোচিত নাম রিয়ান্না, গানের মাধ্যমেই যার চূড়ান্ত উত্থান। হঠাৎ নিজের ব্যস্ততার কারণে গানে সময় দিতে পারছেন না এ গায়িকা। ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ফ্যাশন দুনিয়ায়, বিভিন্ন পোশাকের মডেলিংয়ে। গানে সময় না দিলে কী হবে, ঠিকই করেছেন নতুন রেকর্ড। ফোর্বস ম্যাগাজিন জানিয়েছে, এখন দুনিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী সংগীতশিল্পীর নাম রিয়ান্না। তিনি বর্তমানে ৬০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের সম্পত্তির মালিক। এবার রিয়ান্না পেছনে ফেলেছেন ম্যাডোনা ও বিয়ন্সেকে। আগে এ শীর্ষস্থান এদের দুজনের দখলেই ছিল।

রিয়ান্নার সর্বশেষ স্টুডিও অ্যালবাম ছিল ‘অ্যান্টি’ যা প্রকাশিত হয় ২০১৬ সালে। তারপর বিভিন্ন ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে চালু করেন নিজের কসমেটিকস ব্র্যান্ড ‘ফেন্টি বিউটি’। ধারণা করা হয়, চালু হওয়ার পর প্রথম কয়েক সপ্তাহেই ফেন্টি বিউটি ১০ কোটি ডলারের ব্যবসা করে নেয়।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, রিয়ান্না তার টাকা-পয়সা বেশ বিচক্ষণতার সঙ্গে বিনিয়োগ করেছেন। ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনালের গ্লোবাল বিউটি ম্যানেজার হান্নাহ সিমন্স বলেছেন, ‘বৈশ্বিক বিউটি ইন্ডাস্ট্রির বাণিজ্য ৪৮০ বিলিয়ন ডলারের। ২০১৮ সালে যুক্তরাজ্যের এই বিউটি ইন্ডাস্ট্রির মূল্যমান ছিল ১ হাজার ৭০০ কোটি ডলার। এ হিসাব থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায় কসমেটিকসের বাজার কতটা লোভনীয়।’

সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো, রিয়ান্নার উপার্জনের এ সাফল্য তার সংগীত থেকে আসেনি, যদিও তিনি বিখ্যাত হয়েছেন গায়িকা হিসেবেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি ভক্তদের সঙ্গে ভালোভাবেই যুক্ত থাকেন। ক্রেতাদের সঙ্গে সম্পর্কের কারণেই তার ব্র্যান্ডের এরকম সাফল্য এসেছে। রিয়ান্না তার ব্র্যান্ডের নতুন কী পণ্য আসছে, কবে আসছে, তা সবসময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করেন।

কসমেটিকসের পাশাপাশি রিয়ান্না নারীদের অন্তর্বাসেরও ব্র্যান্ড চালু করেছেন। সম্প্রতি ফরাসি একটি ব্র্যান্ডের সঙ্গেও রিয়ান্নার কোম্পানি কাজ শুরু করেছে। হান্নাহর মতে, রিয়ান্নার ব্যবসাসফল হওয়ার কারণ তিনি বিস্তৃত এক শ্রোতা দলের কাছে আকর্ষণীয়। রিয়ান্নার কোম্পানির পণ্য কিনছেন যারা, তারা যে সবাই তার গানের ভক্ত এমনটা নয়। রিয়ান্না গানের জগতে আছেন ১৫ বছর ধরে, আর যারা তার পণ্য কিনছেন তাদের বেশির ভাগের বয়স ১৬-১৯। রিয়ান্না যখন গান গাওয়া শুরু করেছিলেন, তখন এ ক্রেতাদের অনেকে গান শোনাই শুরু করেননি। রিটেইলারদের সঙ্গে রিয়ান্নার সম্পর্ক খুব ভালো। ব্যবসা যে তিনি ভালো বোঝেন, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না!

মাঝখানে নিজের ব্যবসার স্বার্থে বাবার বিরুদ্ধে মামলা করতে দ্বিধা করেননি রিয়ান্না। তার প্রসাধনী প্রতিষ্ঠান ‘ফেন্টি’র নাম ব্যবহার করে একটি বিনোদনমূলক প্রতিষ্ঠান চালু করেছিলেন রিয়ান্নার বাবা রোনাল্ড ফেন্টি। শুধু তা-ই নয়, রোনাল্ড ও তার ব্যবসায়িক সহযোগী দাবি করেন, ওই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে রিয়ান্না নিজেও যুক্ত।

হলিউড পপতারকা রিয়ান্নার ছোটবেলা কেটেছে কঠোর অনুশাসনের মধ্যে। ১৬ বছর বয়স পর্যন্ত কঠোর শাসনে ছিলেন। ১৬ বছর বয়সের আগে মায়ের জন্য কোনো ছেলেবন্ধুর সঙ্গ পাননি তিনি। কন্টাক্ট মিউজিক সূত্র অনুযায়ী, ২৫ বছর বয়সি রিয়ান্নাকে তার মা অনেক বুঝিয়ে ছেলেবন্ধুদের কাছ থেকে দূরে রেখেছেন। তাই ১৬ বছরের আগে ডেটিংয়ের অভিজ্ঞতা হয়নি তার। রিয়ান্না বলেন, ১৩ বছর বয়সে মা আমাকে বলেছিলেন তোমার ১৬ বছর বয়সে একটি ছেলেবন্ধু থাকতে পারে। যখন ১৬ বছর হলো মা বললেন, আমি কখনো ১৬ বছরের কথা বলিনি। বস্তুত ৪০ বছর বয়স এর জন্য উপযুক্ত। এর মধ্য দিয়েই রিয়ান্না নিজের ক্যারিয়ার গড়ে তুলেছেন। হয়েছেন বিশ্ব পপ মিউজিকের অঘোষিত রানি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads