• শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬
ভারতেও পেঁয়াজের 'ডাবল সেঞ্চুরি'

ফাইল ছবি

ভারত

ভারতেও পেঁয়াজের 'ডাবল সেঞ্চুরি'

  • প্রকাশিত ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশের পর এবার ভারতেও পেঁয়াজের দামে 'ডাবল সেঞ্চুরি' হয়েছে। ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে জানা যায়, তামিলনাড়ু ও মহারাষ্ট্রের কিছু অঞ্চলে কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম বেড়ে ২০০ টাকা দাঁড়িয়েছে।

পেঁয়াজের দামের এই ঊর্ধ্বগতির কারণে গত তিন সপ্তাহে কমেছে ক্রেতার সংখ্যা। পেঁয়াজের দাম ২০০-র ঘর ছুঁতেই এক ধাক্কায় ৯০ শতাংশ ক্রেতা কমে যাওয়ায় ব্যবসা বন্ধ হওয়ার উপক্রম বলে জানিয়েছেন তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের ব্যবসায়ীরা।

এদিকে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির ঘটনায় কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রামবিলাশ পাসোয়ানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ‘প্রতারণা ও বিভ্রান্ত করার’ অভিযোগ এনে মুজ্জাফফরপুর মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের কোর্টে মামলাটি করেছেন এম রাজু নায়ার নামে জনৈক সমাজকর্মী।

যদিও তুরস্ক থেকে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে বলে ইতোমধ্যে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

এশিয়ার বৃহত্তম বাজার ভারতের লাসালগাঁওয়ে বৃহস্পতিবার পেঁয়াজ ঢুকেছে মাত্র ৫২০ টন। যেখানে প্রতিদিন গড়ে ১২০০ থেকে ১৫০০ টন পেঁয়াজের সরবরাহ থাকে।

লাসালগাঁও এগ্রিকালচারাল প্রোডিউস মার্কেট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান নানাসাহেব পাতিল বলেন, অসময়ে বৃষ্টি ও শিলাবৃষ্টির কারণেই বাজারে পেঁয়াজের দাম এত চড়া। বৃষ্টিতে পুরনো মজুত করে রাখা পেঁয়াজ নষ্ট হয়েছে। এমনকি নতুন যে পেঁয়াজ উঠেছিল, বৃষ্টিতে তা-ও পচে নষ্ট হয়েছে। ফলে বাজারে এখন পেঁয়াজের আকাল।তার ধারণা, গোটা ডিসেম্বর পেঁয়াজের দাম এমন চড়া থাকবে। জানুয়ারির মাঝামাঝি থেকে একটু একটু করে কমবে। তবে পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল হতে পারে ২০২০-র ফেব্রুয়ারি।

তার মতে, কেন্দ্র পেঁয়াজ আমদানি করলেও বাজারে যে বিপুল চাহিদা তাতে দামে লাগাম টানা এই মুহূর্তে সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads