• বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৫
ads
জনপ্রিয় হয়ে উঠছে রেলসেবা অ্যাপ

ছবি : সংগৃহীত

তথ্যপ্রযুক্তি

জনপ্রিয় হয়ে উঠছে রেলসেবা অ্যাপ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১১ জুন ২০১৯

সময় ও কষ্ট কমিয়ে রেলযাত্রীদের টিকেটপ্রাপ্তি সহজ করতে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় বাংলাদেশ রেলপথ মন্ত্রণালয় রেলওয়ের ওয়ান স্টপ টিকেটিং সার্ভিস ‘রেলসেবা’ নামে অ্যাপ চালু করেছে। এবার ঈদে অ্যাপটি হয়েছে উঠেছে বেশ জনপ্রিয়।

সম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে রেলসেবা অ্যাপটি রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক যৌথভাবে উদ্বোধন করেছেন। এই অ্যাপের মধ্যে টিকেট ক্রয়ের পাশাপাশি ট্রেনের সাধারণ তথ্য, সময়সূচি ও সিটের তথ্য রয়েছে।

এছাড়া এসএমএসভিত্তিক ট্রেন ট্র্যাকিং, ট্রেনে বসে খাবারের অর্ডার দেওয়া ও ট্রেনের যাত্রার অভিজ্ঞতার রেটিং দেওয়ার সুবিধা রয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, এ পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ৩১ হাজার অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী ও ১০ হাজার ৫১৭ জন আইওএস ব্যবহারকারী টিকেট ক্রয়ের জন্য অ্যাপটি ডাউনলোড করেছেন।

এবার ঈদে অ্যাপের মাধ্যমে বিক্রি হয়েছে ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬৮৭টি টিকেট। ইন্টারনেট ও অ্যাপ ব্যবহার করে যাত্রীরা নিজের স্মার্টফোনে টিকেট কাটার ফলে কাউন্টারে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ভিড় কমেছে। সে হিসাবে কাউন্টারে লাইনে দাঁড়িয়ে গড়ে যাত্রী প্রতি ৩ শ্রমঘণ্টা ব্যয় হলে এক্ষেত্রে অ্যাপ ব্যবহারে অন্তত ৫ লাখ শ্রমঘণ্টা সাশ্রয় করা গেছে।

অ্যাপ ব্যবহারের ফলে যাত্রীর মোবাইল ফোন নম্বর, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, বয়স, লিঙ্গ, নাম ও ঠিকানার তথ্য সার্ভারে সংরক্ষিত থাকায় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সেটি টিকেটের গায়ে লেখা থাকায় টিকেটগুলো কাউন্টারে বিক্রীত টিকেটের মতো কালো বাজারে বিক্রি করা সম্ভব হয় না।

অ্যাপের মাধ্যমে টিকেট কেনার জন্য প্রথমেই গুগল প্লে স্টোর বা আইওএস অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপটি ইনস্টল করতে হবে। এরপর নিবন্ধন সম্পন্ন করে ফোন নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে। আর আগেই যদি আপনি বাংলাদেশ রেলের ই-সেবা ওয়েবসাইট নিবন্ধন করে থাকেন তাহলে সেই আইডি ব্যবহার করে লগইন করতে পারবেন। প্রথমে অ্যাপের purchase অপশনে যেতে হবে। তারপর from station অপশনে ক্লিক করে ড্রপডাউন মেন্যু থেকে কোন স্টেশন থেকে যাবেন নির্ধারণ করতে হবে। যদি স্টেশন না থাকে তাহলে সার্চ বাটন থেকে কিওয়ার্ড লিখে স্টেশন খুঁজে পাওয়া যাবে। একই পদ্ধতিতে কোথায় যাবেন তা নির্ধারণ করতে হবে to station অপশন থেকে। এরপর journey date থেকে কোন তারিখ যাবেন নির্ধারণ করে search train বাটন চাপতে হবে। তাহলে ট্রেনের তালিকা পাওয়া যাবে। সেখান থেকে যে ট্রেনের টিকেট কাটা যাবে দেখা যাবে। সেখানে select class অপশনে ক্লিক করে কোন ধরনের আসন নেবেন তা নির্ধারণ করতে হবে। তারপর adult ও child অপশন থেকে টিকেটের ধরন ও সংখ্যা নির্ধারণ করতে হবে। তারপর select seat অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর আসন নির্বাচন করতে হবে। তারপর নতুন একটি পেজে টিকেটের সম্পর্কে বিস্তারিত দেখা যাবে। সেখান থেকে pay now বাটনে ক্লিক করতে হবে। তাহলে অনলাইনের পেমেন্ট অপশনগুলো দেখা যাবে। ভিসা, মাস্টারকার্ড, এমেক্স কার্ড, নেক্সাস কার্ড, রকেট অথবা বিকাশের মাধ্যমে অর্থ পরিশোধ করা যাবে। ফিরতি মেইল ও এসএমএসে টিকেট কনফারমেশন পাবেন গ্রাহকরা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads