• বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫
ads
আলহাজ্ব জুট মিলের শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

কুষ্টিয়ায় সুগার মিল

সংরক্ষিত ছবি

শ্রমশক্তি

বকেয়া বেতনের দাবি

আলহাজ্ব জুট মিলের শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

কুষ্টিয়ায় সুগার মিলে ধর্মঘট

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৭ আগস্ট ২০১৮

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বন্ধ মিল চালু ও বকেয়া বেতন দাবিতে রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে আলহাজ্ব জুট মিলের বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় ৫ পুলিশসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। অন্যদিকে কুষ্টিয়ায় বকেয়া বেতন দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট ও বিক্ষোভ করেছে কুষ্টিয়া সুগার মিলের শ্রমিক-কর্মচারীরা। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

জামালপুর ও সরিষাবাড়ী : বন্ধ মিল চালু ও বকেয়া বেতন দাবিতে রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে ৩ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে আলহাজ্ব জুট মিলের বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। অবরোধ চলাকালে পুলিশ ও শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৫ পুলিশসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শত শত শ্রমিক আলহাজ্ব জুট মিলের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। শ্রমিকরা সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সরিষাবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনের সামনে উপজেলার প্রধান সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বেলা ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে। এ সময় সরিষাবাড়ী-তারাকান্দি-ভুঞাপুর সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ অবরোধকারীদের সড়ক থেকে সরানোর চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশও শ্রমিকদের লাঠিচার্জ করে। এতে পুলিশসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে পুলিশ কনস্টেবল তাসলিমা ও নারী শ্রমিক জাহানারা বেগমকে সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কুষ্টিয়া : বকেয়া বেতন দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট ও বিক্ষোভ করেছে কুষ্টিয়া সুগার মিলের শ্রমিক-কর্মচারীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া চিনিকলের প্রধান ফটকের সামনে এ কর্মসূচি পালন করে তারা। কুষ্টিয়া চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান মিথুন, যুগ্ম-সম্পাদক মেজবাউল ইসলাম নীলাভ প্রমুখ। এ সময় বক্তারা তিন মাসের পাওনা বেতন অতি দ্রুত সময়ে শ্রমিকদের হাতে বুঝিয়ে দেওয়ার দাবি জানান।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads