• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
বিইউবিটির ছাত্র মাসুদ রানার পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে রুল

বিইউবিটি’র ছাত্র সৈয়দ মো. মাসুদ রানার

সংরক্ষিত ছবি

আইন-আদালত

বিইউবিটির ছাত্র মাসুদ রানার পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে রুল

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৪ জুলাই ২০১৮

মিরপুরের বাসা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করতে যাওয়ার পথে বাসের ধাক্কায় নিহত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউবিটি) ছাত্র সৈয়দ মো. মাসুদ রানার পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করতে কেন সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানাতেও রুল জারি করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র সচিব, সড়ক সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকা মহানগরের পুলিশ কমিশনার, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ও দিশারি পরিবহনের মালিককে এ রুলের জবাব দিতে হবে।  

একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে গতকাল সোমবার বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। গত ১৯ জুলাই নিহত সৈয়দ মো. মাসুদ রানার বাবা সৈয়দ মো. জাহাঙ্গীর রিট আবেদনটি দায়ের করেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অনিক আর হক। সঙ্গে ছিলেন এ এইচ ইমাম হাসান, সানজিদ সিদ্দিকী, মেহেদী হাসান, মুজাহিদুল ইসলাম, মইনুল হায়দার চৌধুরী, জাহিদ চৌধুরী জনি প্রমুখ।

ইমাম হাসান বলেন, বিইউবিটির ছাত্র সৈয়দ মো. মাসুদ রানা দিশারি পরিবহনের বাসের ধাক্কায় মারা যায়। এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষে যথাযথ ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা রিট আবেদনে আদালত এ রুল জারি করেছেন। 

শুনানিতে আদালত বলেন, এ ধরনের দুর্ঘটনার সমাধান হওয়া দরকার। অনিয়ন্ত্রিত গাড়ি চলাচল বন্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে এজন্য বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করা প্রয়োজন।

গত ২ জুলাই সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মিরপুর ঈদগাহ মাঠের কাছে দিশারি পরিবহনের গাড়ির ধাক্কায় মাসুদ রানা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময় তার ওপর দিয়ে বাসটি চলে যায়। তাৎক্ষণিক তাকে পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় শাহ আলী থানায় মামলা হলে গাড়ির চালককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads