• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
রাজশাহীর মুসার রায় মঙ্গলবার

ছবি : সংগৃহীত

আইন-আদালত

মানবতাবিরোধী অপরাধ

রাজশাহীর মুসার রায় মঙ্গলবার

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৬ আগস্ট ২০১৯

একাত্তরের মানবতাবিরোধী মামলায় রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বাঁশবাড়িয়ার রাজাকার আব্দুস সামাদ ওরফে ফিরোজ খাঁ ওরফে মুসার বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা আগামীকাল মঙ্গলবার ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

আজ সোমবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বেঞ্চ রায়ের জন্য এদিন ধার্য করেছেন। এদিন আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর ঋষিকেশ ও জাহিদ ইমাম। আসামির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান।

এর আগে গত ৮ জুলাই উভয়পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখেন ট্রাইব্যুনাল।

মুক্তিযুদ্ধের সময় পশ্চিমভাগ ও গোটিয়া গ্রামে আদিবাসী ও বাঙালিদের ওপর নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালানোর অভিযোগ আছে আবদুস সামাদ মুসা ওরফে ফিরোজ খাঁ'র বিরুদ্ধে। মামলার বিবরণে বলা হয়, ১৯৭১ সালের ১২ এপ্রিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী পুঠিয়া আক্রমণ করে মানুষ হত্যা ও অগ্নিসংযোগ শুরু করলে মুসা হানাদার বাহিনীর সঙ্গে যোগ দেয়।

১৯ এপ্রিল তিনি ৩০ থেকে ৪০ জন হানাদার বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে বাঁশবাড়িয়া গ্রামে যান। সেখানে তারা ২১ জনকে আটক করেন। তাদের নিয়ে রাখা হয় গোটিয়া গ্রামের তৎকালীন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল ইসলামের বাড়িতে। সেখানে দিনভর নির্যাতন করে ১৭ জনকে ছেড়ে দেয়া হলেও হত্যা করা হয় চারজনকে।

আসামির বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাসহ প্রসিকিউসনের ১৫ জন সাক্ষী তাদের জবানবন্দি দিয়েছেন। আসামির পক্ষে কোনও সাফাই সাক্ষী ছিল না।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads