• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
ads
দালাল চক্রের বিরুদ্ধে এক সপ্তাহের ব্যবধানে দু‘বার অভিযান

ছবি : বাংলাদেশের

আইন-আদালত

কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস

দালাল চক্রের বিরুদ্ধে এক সপ্তাহের ব্যবধানে দু‘বার অভিযান

  • কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কুমিল্লা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের দালাল চক্রের বিরুদ্ধে এক সপ্তাহের ব্যবধানে দু‘বার অভিযান পরিচালনা করেছে র‌্যাব। ২৯ আগস্ট ও ৪ সেপ্টেম্বর দু‘দফা অভিযানে ১৩জন দালাল কে গ্রেপ্তার করা হয়। আকটকৃত দালালদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমান পাসপোর্ট, ভূয়া সদন, সিলসহ দালাল চক্রের বিভিন্ন মালামাল। গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে জরিমানা আদায় ও তাদেরকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট রুবাইয়া খানম। উপস্থিত ভুক্তভোগিরা জানান তাদের দূর্ভোগের কথা। আর র‌্যাব বলছে কুমিল্লা পাসপোর্ট অফিস দালাল মুক্ত করার জন্য তাদের অভিযান অভ্যাহত থাকবে।

দালাল ধরতে গেল গতকাল বুধবার কুমিল্লা পাসপোর্ট অফিসের পাশের মার্কেট ও নগরীর রেইসকোর্স এলাকার একটি বাসায় ২য় দফা অভিযান অভিযান চালায় র‌্যাব সদস্যরা। অভিযানে আটক করা হয় ৫ দালালকে । এসময় পাসপোর্ট করতে আসা উপস্থিত ভূক্তভোগিরা জানান, বৈধ কাগজ পত্র থাকা সত্যেও তাদের বার বার ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে অফিস থেকে। পরে বাধ্য হয়েই, দালালের মাধ্যমে পাসপোর্ট করতে হয়েছে তাদের।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট রুবাইয়া খানম জানান, অভিযানে আটক ৫জন দালালকে নগদ জরিমানা ও বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়। তাদের কাছ থেকে পাসপোর্ট, নকল সীল ও বিভিন্ন চেয়ারম্যানের জাল সনদ উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে র‌্যাবের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার প্রনব কুমার বলছেন, তাদের কাছে দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ ছিল কুমিল্লা পাসপোর্ট অফিসের দালালদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ আমলে নিয়ে, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আটক করা হয় এসব দালালদের। পাসপোর্ট অফিস দালাল মুক্ত করতে তাদের এ অভিযান অভ্যাহত থাকবে বলেও জানান র‌্যাব কর্মকর্তা।

সাধারন মানুষ বলছে, কুমিল্লা পাসপোর্ট অফিসে দালালদের দৌরাত্ব্য দিনদিন বেড়েই চলছে। এমন অভিযান অব্যাহত থাকলে সুফল পাবে সাধারন মানুষ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads