• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
পদাবলী

সাঁতারের আগে জাপটে ধরা বাঁশিটি

আর্ট : রাকিব

সাহিত্য

পদাবলী

  • প্রকাশিত ২১ জুলাই ২০১৮

সুবীর সরকার

বাঁশি

ভেসে যাওয়া ইচ্ছেগুলি দিয়েই তো স্বপ্নপূরণ

গাছ ও গাছের পাতা। সমান্তরালে ছায়ার

                                       মাদুর

হামাগুড়ি দিয়ে প্রবেশ করতে হয়। প্রলোভনের

ফাঁদে আটকে পড়া বারবার। কাহিনি

পল্লবিত। সাঁতারের আগে জাপটে ধরা 

                                     বাঁশিটি

 

 

অনু ইসলাম  

তাসের ঘর

সারল্যময় এক জীবনচক্রে হাঁটতে হাঁটতে—

কখন পৌঁছে গেছি; ধূসর রঙের প্ররোচনায়

চারিদিকে এতো স্বার্থপরতার ঘ্রাণ!

বেঁচে থাকার সবুজ ইশতেহারগুলো—

মলিন হয়ে যাচ্ছে; জাফরানি রঙে ভাসছে—

সম্ভাব্য আগামী; মনে পড়ে— ঘুড়ি উড়াবার ক্ষণ

প্রান্তর জুড়ে ছিলো অনন্য এক সাংগীতিক আবহ!

জীবন— যেনো তাসের ঘর; 

দৃশ্যত একটা আয়োজন ভেঙে পড়ে...

 

সৈয়দ শিশির

জন্ম ও বিশ্বাস

এ পৃথিবীতে আসবো এমন কোনো ভাবনা

কখনো আমার ছিলো না;

অর্থাৎ, আমি জন্মগ্রহণ করিনি। বলা যায়—

বিশেষ কোনো পরিস্থিতি অথবা প্রক্রিয়ার শিকার;

যেমন—সুইচ টিপলে ঘুমন্ত বাতি জ্বলে ওঠে।

জীবনের খেলাঘরেও কাউকে বিশ্বাস করতে চাইনি।

ফুটন্ত গোলাপ, প্রস্ফুটিত গোলাপ কিংবা পদদলিত গোলাপ

কোনোটাতেই আমার বিশ্বাস ছিলো না। বলা যায়—

বিশ্বাস করতে বাধ্য হয়েই বিশ্বাসহারা হয়েছিলাম।

 

হানিফ রাশেদীন

মানুষের হাহাকার

চোখের ঘুম মুছে একবার জেগে ওঠো

চাঁদের নৌকা ভিড়িয়েছি তোমার দৃষ্টির কিনারে

জানি না জেগে থেকে মানুষ কেমন করে ঘুমোয়

কেউ নেই আজ চোখ মেলে একটু তাকাবে

এই জলে বলো কেমন করে ভাসাবো নৌকা

সমুদ্রের তলদেশ হতে উঠে আসে মানুষের হাহাকার

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads