• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
আরামকোর দাম উঠেছে দেড় লাখ কোটি ডলারের বেশি

ফাইল ছবি

মধ্যপ্রাচ্য

আরামকোর দাম উঠেছে দেড় লাখ কোটি ডলারের বেশি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৭ নভেম্বর ২০১৯

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল সংস্থা আরামকো শেয়ার বিক্রির জন্য তাদের যে প্রাথমিক মূল্যায়ন করেছে, তাতে আইপিওর মূল্য দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৭০ হাজার কোটি ডলার।

আরামকো হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে লাভজনক কোম্পানি।

সংবাদ মাধ্যমে এমন রিপোর্ট বেরিয়েছে যে, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান চাইছিলেন, আরামকোর দাম ২ লাখ কোটি ডলার পর্যন্ত উঠুক। কিন্তু ১ লাখ ৭০ হাজার কোটির 'ভ্যালুয়েশন' স্পষ্টতই তার বেশ কিছুটা নিচে।

আরামকো তাদের ১ দশমিক ৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করে ২ হাজার ৫০০ কোটি ডলার আয় করতে চাইছে। এই শেয়ার বিক্রির প্রাথমিক তথ্য দিয়ে একটি প্রসপেক্টাস বের করা হয়েছে। এতে প্রতিটি শেয়ারের দাম ধরা হয়েছে ৩০ থেকে ৩২ রিয়াল পর্যন্ত অর্থাৎ ৮ থেকে সাড়ে ৮ মার্কিন ডলার।

খুচরো বিনিয়োগকারী ব্যক্তি থেকে শুরু করে বড় বড় প্রতিষ্ঠানও এ শেয়ার কেনার সুযোগ পাবে। প্রসপেক্টাসে বলা হয়, সৌদি আরবের রাস্তার লোক বা বিধবা মহিলাও এ শেয়ার কিনতে পারবে এবং এই প্রথম স্থানীয় লোকেরা দেশটির সবচেয়ে ধনী কোম্পানির অংশীদার হবার সুযোগ পাচ্ছে।

তবে আন্তর্জাতিক বাজারে শেয়ার কেনার সুযোগ এখনও উন্মুক্ত করা হচ্ছে না।

বলা হচ্ছে, এটিই হতে পারে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শেয়ার বিক্রির উদ্যোগ।

এর আগে ২০১৪ সালে চীনা ই-কমার্স কোম্পানি আলিবাবা শেয়ার ছেড়ে সর্বোচ্চ ২ হাজার ৫০০ কোটি ডলার তুলে নতুন রেকর্ড গড়েছিল, তবে আরামকো হয়তো সে রেকর্ড ভাঙতে যাচ্ছে।

আরামকো কোম্পানির আইপিওর মূল্য ধরা হয়েছে ১ লাখ ৬০ হাজার থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার কোটি ডলার।

সৌদি যুবরাজ সালমান চাইছেন, আরামকোর শেয়ার বিক্রি করে তোলা অর্থ জ্বালানি ছাড়া অন্যান্য খাতে বিনিয়োগ করার মাধ্যমে সৌদি অর্থনীতিকে বহুমুখী করতে।

আরামকো গত বছর ১১ হাজার ১শ কোটি ডলার নিট মুনাফা করেছে। তবে এ বছর প্রথম নয় মাসে মুনাফা কমে ৬ হাজার ৮০০ কোটি ডলারে নেমে এসেছে।

আরামকোর প্রসপেক্টাসে বিনিয়োগের ঝুঁকি হিসেবে সন্ত্রাসী হামলা থেকে শুরু করে মধ্যপ্রাচ্যের ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার উল্লেখ করা হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads