• শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
যাচাই প্রক্রিয়া শেষে রোহিঙ্গাদের নতুন পরিচয়পত্র দেওয়া হবে : জাতিসংঘ

রোহিঙ্গাদের নতুন পরিচয়পত্র দেওয়া হবে

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

যাচাই প্রক্রিয়া শেষে রোহিঙ্গাদের নতুন পরিচয়পত্র দেওয়া হবে : জাতিসংঘ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ জুলাই ২০১৮

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের চোখের স্ক্যান, আঙুলের ছাপ ও ছবিসহ বায়োমেট্রিক তথ্য ১২ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে স্বতন্ত্র পরিচয় নিশ্চিত করতে ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। এ প্রক্রিয়া শেষে তাদের নতুন পরিচয়পত্র প্রদান করা হবে। গত শুক্রবার জাতিসংঘের সদর দফতরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে জাতিসংঘ মহাসচিবের উপমুখপাত্র ফারহান হক বলেন, আশা করা হচ্ছে এই প্রক্রিয়া রোহিঙ্গাদের সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করতে সাহায্য করবে। এ যাচাইকরণ প্রক্রিয়া তাদের সমস্যা সমাধানেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে জাতিসংঘ।

বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া শুরু করেছে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা-ইউএনএইচসিআর। ফারহান বলেন, ছয় মাসের এই প্রক্রিয়া নিরাপত্তা, পরিচয় ব্যবস্থাপনা, বিভিন্ন তথ্য সরবরাহ, সাহায্যের ব্যবস্থা এবং জনসংখ্যা পরিসংখ্যানের উদ্দেশে একটি সমন্বিত তথ্যভাণ্ডার (ডাটাবেজ) তৈরিতে সাহায্য করবে।

গত বছরের আগস্ট থেকে মিয়ানমারে সহিংসতার কারণে বাধ্য হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় সাত লাখের অধিক রোহিঙ্গা। যারা বিগত দশকে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ ও দ্রুত বর্ধনশীল শরণার্থী। তিনি বলেন, চোখের স্ক্যান, আঙুলের ছাপ ও ছবিসহ বায়োমেট্রিক তথ্য ১২ বছরের ঊর্ধ্বে সব শরণার্থীকে স্বতন্ত্র পরিচয় নিশ্চিত করতে ব্যবহার করা হবে। প্রক্রিয়া শেষে শরণার্থীদের নতুন পরিচয়পত্র প্রদান করা হবে।

এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো তারা স্বতন্ত্র পরিচয়ের প্রমাণ পাবে বলেও জানান তিনি। গত সপ্তাহে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্প সফর করেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তেনিও গুতেরেস এবং বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। ফারহান বলেন, বাংলাদেশ সফরকালে মহাসচিব দোভাষীদের মাধ্যমে অনেক বিষয়ে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads