• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
একীভূত ভারতীয় ভিসা কেন্দ্র উদ্বোধন আজ

ভারতীয় ভিসা পেতে ভোগান্তির সমাধান হতে যাচ্ছে

সংরক্ষিত ছবি

জাতীয়

একীভূত ভারতীয় ভিসা কেন্দ্র উদ্বোধন আজ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৪ জুলাই ২০১৮

ভারতীয় ভিসা পেতে ভোগান্তির সমাধান হতে যাচ্ছে। এখন থেকে আর ছুটতে হবে না ই-টোকেনের পেছনে। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ভারত ও বাংলাদেশের দুই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যৌথভাবে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা সংলগ্ন যমুনা ফিউচার পার্কে একটি নতুন, সমন্বিত ও অত্যাধুনিক ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রের উদ্বোধন করবেন।

অত্যাধুনিক স্টেট অব আর্ট সুবিধাসম্পন্ন এ কেন্দ্র কমাবে ভোগান্তি এবং অপেক্ষার প্রহর। ৪৮টি কাউন্টারের মাধ্যমে এখানে ভিসা প্রার্থীরা তাদের আবেদন জমা দিতে পারবেন। নতুন এ ভিসা আবেদন কেন্দ্রে ঢাকায় বিদ্যমান সব ভিসা আবেদন কেন্দ্র (মতিঝিল, উত্তরা, গুলশান ও মিরপুর রোড) প্রতিস্থাপিত হবে। একই সঙ্গে ভারতীয় ভিসা আবেদন জমা দেওয়ার জন্য বিদ্যমান ই-টোকেন (সাক্ষাৎকার) ব্যবস্থাও প্রত্যাহার করা হবে। ভারতীয় হাইকমিশনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মতিঝিল ও উত্তরায় অবস্থিত ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলো ১৫ জুলাই থেকে যমুনা ফিউচার পার্কে নতুন ভিসা আবেদন কেন্দ্রে প্রতিস্থাপিত হবে। বাকি দুটি ভিসা আবেদন কেন্দ্রও (গুলশান ও মিরপুর রোড) ৩১ আগস্টের মধ্যে নতুন ভিসা আবেদন কেন্দ্রে স্থানান্তরিত হবে। এর পর থেকে ঢাকায় এটিই হবে পূর্বনির্ধারিত সাক্ষাৎকারসূচি ছাড়াই সব শ্রেণির ভিসা আবেদনের জন্য একমাত্র ভিসা আবেদন কেন্দ্র।

যমুনা ফিউচার পার্কে নতুন ভিসা আবেদন কেন্দ্র হবে একটি মডেল ভিসা কেন্দ্র। ১৮ হাজার ৫০০ বর্গফুট বাণিজ্যিক এলাকায় অবস্থিত এ ভিসা আবেদন কেন্দ্রে থাকবে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত টোকেন ভেন্ডিং মেশিন (প্রত্যাশিত প্রতীক্ষা সময় নির্দেশিত হবে), আরামদায়ক বসার ব্যবস্থা ও শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অপেক্ষার স্থান, কফি এবং কোমলপানীয় ভেন্ডিং মেশিন, খাবার দোকান ও আবেদন জমা দেওয়ার জন্য ৪৮টি কাউন্টার। জ্যেষ্ঠ নাগরিক, নারী, মুক্তিযোদ্ধা ও ব্যবসায় ভিসা আবেদনের জন্য আলাদা কাউন্টার থাকবে। একটি বিশেষ সহায়তা ডেস্ক এবং প্রিন্টিং, ফটোকপি ইত্যাদি সেবাগুলোর জন্য কাউন্টার থাকবে, যেখানে মূল্য পরিশোধ করে সেবাগুলো পাওয়া যাবে। একটি প্রশস্ত এবং নিরাপদ বিপনীকেন্দ্রে নতুন ভিসা আবেদন কেন্দ্র হওয়ায় আবেদনকারীদের আরামদায়ক ও নিরবচ্ছিন্ন ভিসা সেবা দেওয়া সম্ভব হবে এবং আবেদনের জন্য অপেক্ষা করার সময়ও কমবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, যমুনা ফিউচার পার্কে ভিসা আবেদন সেবাসমূহ সমন্বয় এবং সুযোগ সুবিধাগুলো ভারতীয় ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া আরো সুদৃঢ় করতে এবং ভারত ও বাংলাদেশের মানুষে মানুষে সম্পর্ক শক্তিশালী করার জন্য ভারতীয় স্টেট ব্যাংকের সহযোগিতায় ভারতীয় হাইকমিশনের অব্যাহত প্রচেষ্টার প্রতিফলন।

উল্লেখ্য, নতুন এ কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন ৫ হাজার থেকে সাড়ে ৫ হাজার পাসপোর্ট গ্রহণ সম্ভব হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads