• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, ফিরে যাও

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন

দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, ফিরে যাও

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০২ আগস্ট ২০১৮

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ‘পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে সাবোটাজ ও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে’ বলে শঙ্কা প্রকাশ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, যথেষ্ট হয়েছে, তোমরা ক্লাসে ফিরে যাও, বাসায় ফিরে যাও। ’  আজ বৃহস্পতিবার রাতে ধানমন্ডিতে নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।  

মন্ত্রী বলেন, দুই সহপাঠী হারিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যে প্রতিবাদ জানিয়েছে তা যৌক্তিক। কিন্তু এর ফলে সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়ছে। তা ছাড়া কোমলমতি এই শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সুযোগ নিয়ে অন্তর্ঘাতমূলক তৎপরতা (সাবোটাজ) ও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই অভিভাবক, শিক্ষক ও গভর্নিং বডির সদস্য ও প্রতিবেশীকে অনুরোধ করব, এই কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যাতে মাঠে না নামে, তাদেরকে বোঝাতে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কাছে আমার অনুরোধ, যথেষ্ট হয়েছে, তোমরা ক্লাসে ফিরে যাও, বাসায় ফিরে যাও।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে সাবোটাজ ও দুর্ঘটনা ঘটছে পারে। আন্দোলন নিয়ে সুবিধাবাদীরা ষড়যন্ত্র করতে পারে। যদি কিছু ঘটে তবে নিরাপত্তাবাহিনী এর দায় নিয়ে পারবে না। কেননা তারা দূরে দূরে থাকছে। এ কারণে কোনো একটা কিছু ঘটলে তারা প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে পারবে না। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা সড়কে যে কাজ করছে সেটা তাদের কাজ নয়। তারা আন্দোলনের অংশ হিসেবে এটা করছে। তাই বলব, তমাদের কাছে অনুরোধ করব, যথেষ্ট হয়েছে, এখন ফিরে যাও, যার যে কাজ তাকে সেই কাজ করতে দাও। 

মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে রাজধানী অচল হয়ে পড়েছে। গাড়ি চলছে না। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের ভয়ে মালিকেরা গাড়ি বের করছেন না। ফলে মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছে। চরম দুর্ভোগ চলছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কাছে অনুরোধ যেহেতু দাবি মানা হয়েছে এবং কিছু দাবি মানা প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে তাই তোমরা ক্লাসে ফিরে যাও। কেননা তমাদের এই আন্দোলন ঘিরে সহিংসতা হতে পারে, সাবোটাজ হতে পারে। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আপনারা দেখেছেন, আন্দোলনের মধ্য রাজারবাগ পুলিশ লাইনে, কাফরুল থানায়, মিরপুরে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়েছে।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, পুলিশ চরম ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে। ইতিমধ্যে অনেকই আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে প্রচারণা চালাচ্ছেন। ২০১৩ সালের ছবি পোস্ট করছে বলছে পুলিশ শিক্ষার্থীদের মারধর করছে। এর পেছনে অনেকের রাজনৈতিক উদ্দেশ ও অভিলাষ আছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads