• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
কোরবানি পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণের অনুরোধ

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

কোরবানি পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণের অনুরোধ

  • বাসস
  • প্রকাশিত ১৬ আগস্ট ২০১৮

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা থেকে এ অনুরোধ জানানো হয়।

সভায় বলা হয়, পরিবেশ দূষণ রোধ করার জন্য সকল সরকারি, বেসরকারি সংস্থা ও সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কুরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণের অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের আলোকে কুরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ পরিবেশবান্ধব উপায়ে অপসারণ বিষয়ে পরিবেশ অধিদফতর থেকে ৩ লাখ লিফলেট বিতরণের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সারা দেশে জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদফতর, স্থানীয় সরকার বিভাগের অধীনস্ত প্রতিষ্ঠান ও জেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে এ লিফলেট বিতরণ করা হবে। এ বিষয়ে প্রত্যেক জেলায় জেলা প্রশাসকেরা জেলা তথ্য অফিসার, উপ-পরিচালক ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও জনপ্রতিনিধিসহ অন্যান্য দফতরে সমন্বয়ে সভা আয়োজন করবেন। জেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে মাইকিং ও ডকুমেন্টারি প্রদর্শনের মাধ্যমে জনসচেতনতা তৈরি করা হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে জেলা পর্যায়ে প্রত্যেক মসজিদের ইমামরা পবিত্র ঈদুল আজহার পূর্বের জুম্মায় এবং ঈদুল আজহার খুৎবাতে বক্তব্য প্রদান করবেন।

পরিবেশ অধিদফতরে প্রকাশিত লিফলেটে উল্লেখিত তথ্য সব ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়াতে প্রচারের ব্যবস্থা করা হবে। জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য পরিবেশ অধিদফতর কর্তৃক সরবরাহকৃত ফিচার তথ্য অধিদফতর সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রচারের ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে সব মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে খুদে বার্তা প্রেরণের ব্যবস্থা করা হবে।

ঢাকা শহরে বর্জ্য পরিস্কার করার ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্ধারিত স্থানে বর্জ্য ফেলার জন্য সিটি কর্পোরেশনের প্রতিনিধি উক্ত সভার মাধ্যমে সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কমিশনারদের মাধ্যমে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য বিনামূল্যে প্লাস্টিক ব্যাগ সরবরাহ করা হবে বলে তিনি সভাকে অবহিত করেন। মহানগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে জনসচেতনতার জন্য মাইকিংসহ জনসচেতনতামূলক স্টিকার ও লিফলেট বিতরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারের পাশাপাশি সবক’টি প্রাইভেট চ্যানেলে এ বিষয়ে তথ্যসম্বলিত ডক্যুমেন্টারি প্রদর্শন ও স্পেশাল বুলেটিন প্রচারের ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সকল বেসরকারি চ্যানেলসমূহকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads