• শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
‘বাজেটে বরাদ্দ না থাকলে কম বেতন নিতে রাজি’

ছবি : সংগৃহীত

জাতীয়

‘বাজেটে বরাদ্দ না থাকলে কম বেতন নিতে রাজি’

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বর্তমান বাজেটে অর্থ বরাদ্দ যথেষ্ট না থাকলে কম বেতন নিতে রাজি আছি বলে জানিয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ নয় বছর পর নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা ১৫ থেকে ২০ বছর ধরে বিনা বেতনে চাকরি করছেন। অনেকের চাকরির বয়স আছে মাত্র তিন থেকে পাঁচ বছর। তাই এত বছর পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির আংশিক সমাধান করতে দেওয়া সমীচীন হবে না। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কিছু প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ অসুস্থ প্রতিযোগিতা ছাড়া আর কিছুই নয়।

এই প্রতিযোগিতায় টিকতে না পেরে অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে। তাই আমরা এমপিওভুক্তির একটি সামগ্রিক ও স্বচ্ছ সমাধান আশা করছি। সে ক্ষেত্রে বর্তমান বাজেটে অর্থ বরাদ্দ যথেষ্ট না থাকলে আমরা কম বেতন নিতে রাজি। পর্যায়ক্রমে কয়েক বছরে বেতন দিতে পরে। এ ক্ষেত্রে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। আমরা আশা করি, সরকার দ্রুত এবং একযোগে সব স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির কাজ সম্পন্ন করবে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, দুই হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ধাপে ধাপে এমপিওভুক্ত করা হবে। এটা নন-এমপিও শিক্ষকদের জন্য দুঃসংবাদ বলে দাবি করেছেন বক্তারা। সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায়সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads