• মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৪
ads
টাঙ্গাইলে ৩১টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি : সংগৃহীত

জাতীয়

টাঙ্গাইলে ৩১টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৪ মার্চ ২০১৯

টাঙ্গাইলেরে মির্জাপুরের তিনটি উন্নয়ন কাজসহ জেলার ৩১টি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা স্মারক স্বর্ণপদক প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিতে টাঙ্গাইলে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকালে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারে মির্জাপুর হেলিপ্যাডে পৌঁছালে জেলা পুলিশ প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

বেলা ১১টা ২৮ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ভারতেশ্বরী হোমস মাঠের অনুষ্ঠান মঞ্চে আসেন। সেখানে তিনি হোমসের ছাত্রীদের সঙ্গে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনে যোগ দেন এবং ছাত্রীদের মনোজ্ঞ ডিসপ্লে দেখেন।

এরপর তিনি আলোচনায় যোগ দেন। সভায় বক্তৃতা করেন কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রস্টের পরিচালক (শিক্ষা) প্রতিভা মুৎসুদ্দি ও পরিচালক শ্রীমতি সাহা।

পরে প্রধানমন্ত্রী কুমুদিনী কমপ্লেক্স থেকে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে ৩১টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

দিনব্যাপী এ সফরে প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচির মধ্যে আরো রয়েছে- মির্জাপুরে কুমুদিনী কমপ্লেক্সে দানবীর রনোদা প্রসাদ সাহা স্বর্ণপদক প্রদান ও জেলার ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়।

কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গল (বিডি) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত রয়েছেন।

ট্রাস্টের ৮৬ বছর কার্যকাল পূর্তি উপলক্ষে চারজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বকে এ বছরের দানবীয় রনোদা প্রসাদ সাহা স্বর্ণ পদক প্রদান করা হয়। তারা হচ্ছেন: কিংবদন্তীতূল্য রাজনৈতিক নেতা ও তদানিন্তন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী হোসেইন শহীদ সোহরাওয়ার্দী (মরণোত্তর), জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম (মরণোত্তর), নজরুল গবেষক প্রফেসর রফিকুল ইসলাম ও বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী শাহবুদ্দীন। সোহরাওয়ার্দীর পক্ষে শেখ রেহেনা এবং জাতীয় কবির পক্ষে কবির নাতনী খিল খিল কাজী প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে স্বর্ণপদক গ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads