• সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৫
ads
‘শিশুমনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ জাগ্রত করুন’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় শিশুরা

ছবি : বাংলাদেশের খবর

জাতীয়

‘শিশুমনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ জাগ্রত করুন’

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৩ মার্চ ২০১৯

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি শিশুদের অন্তরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ জাগ্রত করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে জানলে ও চিনতে পারলে দেশপ্রেম জাগ্রত হবে, যা জাতিকে উন্নত সমৃদ্ধ ঠিকানায় পৌঁছে দেবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে ভবিষ্যৎ রাষ্ট্র বিনির্মাণে সব শিশুকে বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসতে হবে।

গতকাল শুক্রবার বিকালে জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও আর্ট ক্যাম্প উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবের সভাপতি আ স ম ফিরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ও পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এবি তাজুল ইসলাম। খবর বাসস।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। জাতির পিতার জন্ম দিবসকে ‘জাতীয় শিশু দিবস’ আখ্যায়িত করার মূল উদ্দেশ্যই হলো শিশুদের অন্তরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে জাগ্রত করা। তিনি বলেন, টুঙ্গিপাড়ার সেই দিনের ‘খোকা’ বর্তমানে ইতিহাসের মহানায়ক, আপসহীন থেকে অন্যায় ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে জনগণের মুক্তির লক্ষ্যে লড়াই সংগ্রামের মাধ্যমে এনেছিলেন বাংলার স্বাধীনতা। কারো দান কিংবা অনুকম্পায় নয়, লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে বাংলার স্বাধীনতা।

শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা আয়োজনের মাধ্যমে পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব এই মহতী উদ্যোগ গ্রহণ করায় ক্লাবের সদস্যকে তিনি ধন্যবাদ জানান। এ ধরনের উদ্যোগের ফলে শিশুদের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটবে, বঙ্গবন্ধু আজীবন বেঁচে থাকবেন শিশুদের অন্তরে।

এ সময় হুইপ মো. আতিউর রহমান আতিক, এনামুল হক, মো. হাবিবর রহমান ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমদ খানসহ সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিশু-কিশোরদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads