• শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
'বাংলাদেশে শ্রীলঙ্কার মতো হামলার সম্ভাবনা নেই'

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

'বাংলাদেশে শ্রীলঙ্কার মতো হামলার সম্ভাবনা নেই'

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৩ এপ্রিল ২০১৯

বাংলাদেশের জঙ্গিবিরোধী অভিযান উগ্রবাদী গোষ্ঠীগুলোর সক্ষমতা এমনভাবে কমিয়ে দিয়েছে যে তাদের আর বড় ধরনের হামলা চালানোর সামর্থ্য নেই বলে দাবি করেছেন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, দেশ সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে। সন্ত্রাসী ও জঙ্গি হিসেবে চিহ্নিত অনেকে দেশব্যাপী ‘বন্দুকযুদ্ধ’ বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানকালে নিহত হয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব) আয়োজিত ‘মিট উইথ মনিরুল ইসলাম’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান বলেন, ‘আমি মনে করি তারা (জঙ্গিরা) এমন বড় হামলা চালাতে সক্ষম নয়।’ হামলার পুনরাবৃত্তি রোধ করতে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলো সতর্ক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গত রোববার ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কায় কয়েকটি গির্জা ও হোটেলে চালানো ভয়াবহ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১০ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে এবং পুলিশ এখন পর্যন্ত ৪০ সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, হলি আর্টিসান হামলার পর বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করেছে। ‘কিন্তু আমরা তাদের (জঙ্গিদের) নির্মূল করতে পারিনি।’

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাজধানী ঢাকার কূটনৈতিক এলাকার কেন্দ্রে অভিজাত রেস্তোরাঁ হলি আর্টিসানে সশস্ত্র জঙ্গিরা হামলা চালিয়ে ঠাণ্ডা মাথায় ২২ ব্যক্তিকে হত্যা করেন, যাদের বেশিরভাগই ছিলেন বিদেশি।

কাউন্টার টেররিজম প্রধান বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। ‘সেই সাথে অনেক জঙ্গিবিরোধী কর্মসূচি নেয়া হয়েছে।’

ক্র্যাব সভাপতি আবুল খায়ের, সাধারণ সম্পাদক দীপু সারোয়ার ও ডিএমপির উপকমিশনার (গণমাধ্যম) মাসুদুর রহমান অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads