• সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
শিশু সুরক্ষা ও স্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণে নেটওয়ার্ক মিটিং অনুষ্ঠিত

ছবি : সংগৃহীত

জাতীয়

কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটির উদ্যোগে

শিশু সুরক্ষা ও স্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণে নেটওয়ার্ক মিটিং অনুষ্ঠিত

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৬ এপ্রিল ২০১৯

এডুকেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন-এডুকো এর সহায়তায় মেরুল ও পাঁচখোলা কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটির উদ্যোগে শিশু সুরক্ষার দায়িত্ববাহকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে। গত ২৩ এপ্রিল মেরুল ও পাঁচখোলা কমিউনিটির শিশু সুরক্ষা কমিটির সদস্যদের নিয়ে ৪১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল অফিসে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, মোঃ শফিকুল ইসলাম কাউন্সিলর, ৪১ নং ওয়ার্ড, সাতারকুল, ঢাকা। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, বাড্ডা থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক ও “ধুমপান মুক্ত বাংলাদেশ চাই” এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম, ব্র্রাক এর প্রতিনিধি, অত্র এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪ জন প্রধান শিক্ষক এবং এডুকো’র অপারেশন কোঅর্ডিনেটর রাফেজা আক্তার, প্রজেক্ট অফিসার লাকী আক্তার, মোঃ শফি উদ্দিন খান, খাদিজা খাতুন, এডুকোর প্রধান শিক্ষকগন, শিশু সুরক্ষা কমিটির সদস্য ও এডুকো স্কুলের এসএমসি, এডুকো ইউথ ফোরাম, শিশু ফোরাম এর সদস্যবৃন্দ।

সভায় এডুকোর কার্যক্রম, শিশু সুরক্ষা এবং কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষার ও স্বাস্থ্য বিষয়ের উপর উপস্থাপন করা হয়। উপস্থাপন শেষে এডুকো ইউথ ফোরাম ও শিশু ফোরাম এর সদস্যবৃন্দ কাউন্সিলর মোঃ শফিকুল ইসলাম এবং উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ শফিকুল ইসলাম এর কাছে বিভিন্ন প্রস্তাব রাখেন। যার মধ্যে, শিশুদের সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে বাল্য বিবাহ রোধ, শিশু শ্রম রোধ ও ইভ টিজিং রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার কথা শিশুরা তুলে ধরে। এছাড়া মাদক ব্যবসা ও শিশুদেরকে মাদক থেকে দূরে রাখার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে আরো বেশি সোচ্চার হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। বাল্য বিবাহ রোধ ও শিশু শ্রম বন্ধের জন্য জন্ম নিবন্ধন নিশ্চিতকরনের গুরুত্ব তুলে ধরেন শিশুরা। প্রতিবন্ধি শিশুদের পড়ালেখার জন্য কাউন্সিলর অফিসের বাজেট বরাদ্দ ও এই এলাকায় একটি প্রতিবন্ধি বিদ্যালয় গড়ার প্রস্তাব করে শিশুরা। এসময় কাউন্সিলর ও পুলিশ কর্মকর্তা তাদের প্রস্তাবের প্রশংসা করেন এবং সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস প্রদান করেন।

এছাড়া কাউন্সিলর এবং পুলিশ কর্মকর্তা সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ ও হেল্প লাইনের কথা উল্লেখ করেন। তারা বলেন, শিশু নির্যাতন মূলক যে কোন সমস্যা হলে ৯৯৯, ১০৯৮ অথবা ১০৯ এর যে কোন নম্বর এ ফোন করার জন্য এবং কাউন্সিলর অফিসে সংবাদ দেওয়া। পরবর্তী তারা শিশুদের সার্বিক সহযোগীতা করবেন বলে তারা আশ্বাস দেন। সবশেষে ওয়ার্ড কাউন্সিলর কমিউনিটির শিশু সুরক্ষা ও স্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণে সকল স্তরের দায়িত্ববাহকদের নেটওয়ার্ক মিটিং এর আয়োজন করার জন্য এডুকোকে ধন্যাবাদ জানান। সেই সঙ্গে সকলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন যে, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় কমিউনিটি থেকে সকল প্রকার নির্যাতন, নিপীড়ন বন্ধ করে একটি সুস্থ সমাজ, একটি সূখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads