• রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
দুদক পরিচালক এনামুল বাছির সাময়িক বরখাস্ত

দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

দুদক পরিচালক এনামুল বাছির সাময়িক বরখাস্ত

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১০ জুন ২০১৯

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে দুদক। আজ সোমবার বিকালে দুদক কার্যালয়ের সাংবাদিকদের এমন তথ্য জানান সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, তদন্ত চলাকালে তদন্তাধীন তথ্য অভিযুক্ত ব্যক্তির কাছে প্রকাশ করার অপরাধে তার বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এনামুল বাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, গতকাল রোববার এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে কমিশনের সচিব মো. দিলওয়ার বখতকে। অন্য সদস্যরা হলেন মহাপরিচালক (লিগ্যাল) মো. মফিজুর রহমান ভূঞা এবং মহাপরিচালক (প্রশাসন) সাঈদ মাহবুব খান।

আজ সোমবার বিকেলে এই কমিটির প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা রয়েছে। তবে এই প্রতিবেদনে কি আছে সে তথ্য প্রকাশ করেননি দুদক চেয়ারম্যান।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, এনামুল বাসিরের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সেটি অসদাচরণ। এতে দুদক বিব্রত নয়। ব্যক্তির দায় প্রতিষ্ঠানের নয়। দুদকের ৮৭৪ জন কর্মীর সততার নিশ্চয়তা কমিশন দিতে পারে না।

এর প্রশ্নের জবাবের ইকবাল মাহমুদ বলেন, এনামুল বাসিরের সঙ্গে ডিআইজি মিজানুর রহমানের কথোপকথন নিশ্চিত হতে নিশ্চিত হতে অডিও রেকর্ড ফরেনসিক পরীক্ষা করতে হবে। তাছাড়া মিজানুর ঘুষ দিয়েছেন প্রমাণিত হলে দুদক মামলা করবে বলে জানান তিনি।

ডিআইজি মিজানের দুদকের কাছে করা অভিযোগ থেকে জানা গেছে, তার বিরুদ্ধে তদন্তের দায়িত্ব পাওয়া দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের সঙ্গে তার চুক্তি ছিল টাকার বিনিময়ে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাবেন। তবে টাকা নিয়েও শেষ পর্যন্ত তার বিরুদ্ধেই প্রতিবেদন জমা দেন বাছির। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অবৈধ লেনদেনের এই ঘটনা দুদকের কাছে ফাঁস করেন ডিআইজি মিজানুর রহমান।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads