• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
টুঙ্গিপাড়ায় দুইপক্ষ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে, আহত ৫০

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

টুঙ্গিপাড়ায় দুইপক্ষ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে, আহত ৫০

  • গোপালগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৯ জুন ২০১৯

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। এ সময় টুঙ্গিপাড়া প্রেসক্লাবসহ ১৫টি দোকানে হামলা,ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে টুঙ্গিপাড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশের সূত্রে জানা গেছে, সোমবার টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শ্রীরামকান্দি গ্রামের শেখ সাঈফুল ইসলাম উপজেলার গহরডাঙ্গা ব্রীজের কাছে  তার পরিচালিত শেখ রাসেল কিন্ডার গার্টেন স্কুলের সামনে থেকে আড্ডারত গিমাডাঙ্গা গ্রামের দুই যুবককে চলে যেতে বলেন। এ নিয়ে সাঈফুল ইসলামের সাথে ওই দুই যুবকের কথা কাটাকাটি হয়।

ঘটনার পরদিন এ ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার রাতে গিমাডাঙ্গা ও শ্রীরামকান্দি গ্রামের লোকজন টুঙ্গিপাড়া বাসস্ট্যান্ড দেশীয় আস্ত্রসস্ত্র নিয়ে মহড়া দিতে থাকে।

এক পর্যায়ে দু’গ্রামবাসী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের দোকানপাট ও টুঙ্গিপাড়া প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয় হামলা ও ভাংচুর করে। সংঘর্ষে পুলিশসহ প্রায় অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন।

পরে শতাধিক রাউন্ড রবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

সংঘর্ষে আহতদের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি একেএম এনামুল কবীর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। টুঙ্গিপাড়ায় বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads