• বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬
ads
রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন

ফাইল ছবি

জাতীয়

ট্রেন দুর্ঘটনায় গাফিলতির প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা: রেলমন্ত্রী

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৬ জুন ২০১৯

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার জন্য কারো দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।

এ দুর্ঘটনায় নিহতদের ১ লাখ এবং আহতদের ১০ হাজার টাকা করে অর্থিক সহায়তা দেন তিনি।

আজ বুধবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুর্ঘটনায় আহতদের দেখতে গিয়ে রেলপথমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের রেলপথমন্ত্রী বলেন, দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। কমিটির রিপোর্টে দুর্ঘটনার জন্য কারো দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, আখাউড়া সিলেট রুটে ডুয়েল গেজ রেল লাইন নির্মাণ করা হবে। একনেকে প্রকল্পটি অনুমোদিত হয়েছে। দ্রুত কাজ শুরু হবে। বিদ্যমান লাইনের সেতুগুলো নতুন করে নির্মাণ করা হবে। আর যেন দুর্ঘটনা না ঘটে সেজন্য সারাদেশের রেললাইন প্রয়োজনীয় সংস্কারের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

পরে রেলমন্ত্রী দুর্ঘটনায় নিহত ফাইমিদা ইয়াসমিন ইভার পরিবারকে সান্ত¦না জানাতে তার গ্রামের বাড়ি আব্দুল্লাপুরে যান। সেখানে তিনি নিহতের পরিবারের হাতে রেলওয়ের পক্ষ থেকে ১ লাখ টাকা নগদ সহায়তা প্রদান করেন। সেখানে নিহতের রূহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

পরে মন্ত্রী মৌলভিবাজার জেলার কুলাউড়ার দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ সময় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন, বাংলাদেশের রেলওয়ের মহাপরিচালক কাজী মোহাম্মদ রফিকুল আলম অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস বরমচালের বড়ছড়া সেতু এলাকা পার হওয়ার সময় বগি লাইনচ্যুত হয়। ট্রেনের ১৭টি বগির মধ্যে ৫টি বগি ছিটকে বড়ছড়ায় গিয়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে চারজন নিহত ও শতাধিক যাত্রী আহত হন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads