• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
ads
ঢাকায় হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন শুরু

ছবি : সংগৃহীত

জাতীয়

ঢাকায় হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন শুরু

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৬ জুলাই ২০১৯

ইতোমধ্যে ৪১৭ জন হজযাত্রী হজের প্রথম ফ্লাইটে সৌদি আরব গমন করেছেন। তাদের সৌদির ইমিগ্রেশন ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হওয়ার কথা থাকলেও কারিগরি জটিলতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবে গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে হজযাত্রীদের সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পূর্ণোদ্যমে শুরু হ‌য়ে‌ছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন জানান, মক্কার রুট ইনিশিয়েটিভের আওতায় গত বৃহস্পতিবার রাত ১টায় বিমানের বি‌জি-৩০০৩ ফ্লাইট জেদ্দার উদ্দশে ঢাকা ছেড়েছে। এতে ৪১৯ জন হজযাত্রী রয়েছেন। তাদের প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম ঢাকায় সম্পন্ন হয়েছে। এখন থেকে নির্ধারিত ফ্লাইটের হজযাত্রীরা এ সুবিধা পাবেন। কারিগরি জটিলতার কারণে এ কার্যক্রম খানিকটা বিলম্বিত হলেও হজ ফ্লাইটগুলো নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে গিয়েছে এবং হজযাত্রীরা জেদ্দায় দ্রুততম সময়ে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে মক্কা শরিফে পৌঁছেছেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, হজ মৌসুমে দুই মাসব্যাপী ৩০৪টি ডেডিকেটেড ও ৬১টি শিডিউল ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত প্রি-হজে মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড ১৫৭ এবং শিডিউল ৩২)। পোস্ট হজে ১১৫টি ফ্লাইট চলবে ১৭ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত (ডেডিকেটেড ৮৬ ও শিডিউল ২৯)। তার মধ্যে বাংলাদেশ থেকে মদিনা ১৮টি ও মদিনা থেকে বাংলাদেশে ১৫টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এছাড়া চট্টগ্রামে ১৯টি ও সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

এছাড়া এ বছর প্রায় এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে সৌদি আরব যাবেন। সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন সাত হাজার ১৯৮ জন। হজযাত্রীদের ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা এবং ঢাকা-মদিনা-ঢাকা রুটে পরিবহনের জন্য বিমানের চারটি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজ প্রস্তুত রাখা হয়েছে। গত ৪ জুলাই হজফ্লাইটের উদ্বোধনী দিনে ১৪১২ জন হজযাত্রী নিয়ে গেছে বিমান ও সৌদি এয়ারলাইনসের মোট সাতটি ফ্লাইট।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads