• বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৫
ads

জাতীয়

বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের ৪৮তম শাহাদতবার্ষিকী আ‍াজ

  • নড়াইল প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আজ বৃহস্পতিবার বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখের ৪৮তম শাহাদতবার্ষিকী। ১৯৭১ সালের ৫ সেপ্টেম্বর যশোর জেলার গোয়ালহাটিতে পাকবাহিনীর সঙ্গে সম্মুখযুদ্ধে শাহাদতবরণ করেন তিনি। যশোরের শার্শা উপজেলার কাশিপুর গ্রামে তাকে সমাহিত করা হয়।

দেশের এ শ্রেষ্ঠ সন্তানের ৪৮তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে নড়াইলে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখ ট্রাস্ট ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে নুর নগর গ্রামে নূর মোহাম্মদ শেখ গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘরের সামনে তার স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ, কোরআনখানি, দোয়া এবং স্মরণসভার আয়োজন করা হয়েছে।

১৯৫৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি পূর্ব পাকিস্তান রাইফেলস (বর্তমানে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ-বিজিবি) যোগদান করেন। দিনাজপুর সীমান্তে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করে ১৯৭০ সালের ১০ জুলাই বদলি হন যশোর সেক্টরে। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি যশোর অঞ্চল নিয়ে গঠিত ৮নং সেক্টরে দেশমাতৃকার মুক্তি সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েন। এ সময় যশোরের শার্শা উপজেলার কাশিপুর সীমান্তের বয়রা অঞ্চলে পাক হানাদারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন নড়াইলের এ সাহসী সন্তান।

এপ্রিল থেকে আগস্ট পর্যন্ত ৮নং সেক্টর কমান্ডার ছিলেন কর্নেল (অব.) আবু ওসমান চৌধুরী এবং সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কমান্ডার ছিলেন মেজর এস এ মঞ্জুর। ৫ সেপ্টেম্বর পাকবাহিনীর গুলিতে সহযোদ্ধা নান্নু মিয়া গুরুতর আহত হলেও সহযোদ্ধাকে কাঁধে নিয়েই এলএমজি হাতে নিয়ে শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে গুলি ছুড়তে থাকেন। একপর্যায়ে পাকবাহিনীর একটি মর্টারের আঘাতে নূর মোহাম্মদের হাঁটু ভেঙে যায়। শক্রমুক্ত করার জন্য প্রাণপণ যুদ্ধ চেষ্টা চালিয়ে যান। দেশমাতৃকার জন্য এ অসামান্য অবদানের জন্য তৎকালীন সরকার তাকে বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি প্রদান করে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads