• বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭
জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ফাইল ছবি

জাতীয়

জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৪ জানুয়ারি ২০২১

অক্সফোর্ডের করোনা টিকা পুরোপুরি নিরাপদ জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জনগণের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আপনারা ভ্যাকসিন নেন, টিকা নেয়ার ভয়ের কিছু নেই। বিশ্বের যে কোনো ভ্যাকসিনের চেয়ে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সবচেয়ে কম, এ জন্য এটা নিরাপদ।’ তবে জোর করে কাউকে ভ্যাকসিন দেয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

আজ রোববার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

যে কোনো রোগের টিকারই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘করোনার ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া খুব সামান্য। এটা নিলে জ্বর, মাথাব্যাথা হতে পারে।’

এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া শতকরা দুই থেকে তিন শতাংশ মানুষের হতে পারে বলে আগেই জানিয়েছেন মন্ত্রী। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পর্যবেক্ষণের জন্যই প্রাথমিকভাবে টিকা কেবল সরকারি হাসপাতালে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

মন্ত্রী জানান, টিকা নিতে আগ্রহীদের নিবন্ধনের জন্য তৈরি অ্যাপ সোমবার হস্তান্তর করবে সরকারের তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ। বিকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সেটির উদ্বোধন করা হবে।

টিকা প্রয়োগ নিয়ে যেন কোনো অনিয়ম না হয় সেজন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সুপারিশ করেছে বলেও জানান মন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, করোনার এন্টিবডি পরীক্ষার অনুমতি দিয়ে দিয়েছেন তারা।

বিশ্বের নানা দেশে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির যৌথ প্রযুক্তিতে তৈরি ফাইজার, যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না, রাশিয়ার স্পুৎনিক, চীনের সিনোভ্যাক্স এবং যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা প্রয়োগ হচ্ছে। বাংলাদেশ বেছে নিয়েছে অক্সফোর্ডের টিকা। এটি উৎপাদন করছে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট যার নাম রাখা হয়েছে কোভিশিল্ড। তবে করোনার টিকা নিয়ে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও নানা সংশয়ের কথা উঠে আসছে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে।

বাংলাদেশে টিকা নিয়ে রাজনৈতিক দলের মধ্যে বিএনপির পক্ষ থেকেও সংশয়ের কথা বলা হচ্ছে। তাদের সমর্থকরা ফেসবুকে টিকার বিরুদ্ধে নানা প্রচারও চালাচ্ছেন।

এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আগামী বুধবার ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে একজন নার্সকে টিকা দেয়ার মাধ্যমে টিকা প্রয়োগের উদ্বোধন করা হবে। প্রথমে টিকা পাবে ২০ থেকে ২৫ জন। আর দেশজুড়ে টিকা প্রয়োগ শুরু হবে ৮ ফেব্রুয়ারি। এরই মধ্যে ভারত থেকে উপহারের ২০ লাখ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। আর তিন কোটি টিকার মধ্যে প্রথম চালানের ৫০ লাখ আসছে আাগামীকাল সোমবার।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads