• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
পাইকগাছায় ঘূর্ণিঝড়ে ৪ শতাধিক নার্সারীর ক্ষয়ক্ষতি

পাইকগাছায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থ নার্সারী

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

প্রাকৃতিক দুর্যোগ

পাইকগাছায় ঘূর্ণিঝড়ে ৪ শতাধিক নার্সারীর ক্ষয়ক্ষতি

  • পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৭ নভেম্বর ২০১৯

পাইকগাছায় অতি সম্প্রতি প্রবল ঘুর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ৪ শতাধিক নার্সারীর ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে জানাগেছে। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ নার্সারী মালিক সমিতি সাহায্যের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছে।

জানাগেছে, গত ৯ নভেম্বর ঘুর্ণিঝড় বুলবুল উপকূলীয় পাইকগাছায় আঘাত হানে। এতে উপজেলার গদাইপুরের ৪ শতাধিক নার্সারী ক্ষতিগ্রস্থ হয়। নষ্ট হয়ে গেছে কমলা লেবু, লিচু, জাম, জামরুল, আম, কাঁঠাল সহ বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ, বনজ, ঔষধী, ফুল ও ফলের চারা। বিশেষ করে নার্সারীতে থাকা হাজার হাজার ছোট ছোট নতুন রেনু ও কলম চারাগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। যাতে প্রায় ৬০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়। এলাকার বেকার যুবকরা ৭০/৮০ বিঘা জমি লীজ নিয়ে এসব নার্সারী গড়ে তুলেছে বলে জানাগেছে।

নার্সারী মালিক সমিতির সভাপতি আক্তারুল ইসলাম জানান, প্রতিবছর গদাইপুরের এ সকল নার্সারীর চারা ও কলম দেশের বিভিন্ন স্থানে চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানী করা হয়। যা চলতি বছর নতুনভাবে চারা ও কলম চাষ না হলে আগামী বছরে এর উপর ব্যাপক প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যার ফলে নার্সারী মালিকরা হতাশ হয়ে পড়েছে এবং ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়ার আশংকায় ভুগছে।

নতুনভাবে নার্সারীগুলো স্বচল করার লক্ষে সরকারি সাহায্যের আবেদন জানিয়ে ইউএনও জুলিয়া সুকায়না ও কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলমের নিকট আবেদন করা হয়েছে বলে নার্সারী মালিক সমিতির সভাপতি জানিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads