• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬
ads

সংসদ

সংসদের চতুর্থ অধিবেশনে ছিলেন না ১৬ এমপি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২১ অক্টোবর ২০১৯

চলমান একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশনে ১৬ জন এমপি অনুপস্থিত ছিলেন। চলতি বছরের ৮ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর মোট চার কার্যদিবস চলা এ সংসদ অধিবেশনে গড়ে ২৬৯ জন উপস্থিত ছিলেন।

অধিবেশন শুরুর দিন গত ৮ সেপ্টেম্বর সর্বোচ্চ সংখ্যক ২৮৯ জন এমপি উপস্থিত ছিলেন। শেষ দিন ১২ সেপ্টেম্বর সর্বনিম্ন ২৫৬ জন সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন। নিয়ম অনুযায়ী শেষ দিন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ বক্তব্য রেখেছেন। অথচ ওই দিন কম উপস্থিতি ছিল। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া।

সংসদ ভবনের লবিতে রাখা স্বাক্ষরকৃত হাজিরা বই ও ডিজিটাল হাজিরা পর্যালোচনা করে জানা গেছে, অনুপস্থিত থাকা ১৬ এমপির মধ্যে ১৪ জনই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের। বাকিদের মধ্যে একজন বিএনপির ও একজন স্বতন্ত্র।

অনুপস্থিত থাকা এমপিরা হলেন আওয়ামী লীগের মো. ইউনুস আলী সরকার (গাইবান্ধা-৩), ওমর ফারুক চৌধুরী (রাজশাহী-১), কাজী নাবিল আহমেদ (যশোর-৩), রেবেকা মমিন (নেত্রকোনা-৪), জাহিদ মালেক (মানিকগঞ্জ-৩), মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন (গাজীপুর-৩), জহিরুল হক ভূইয়া মোহন (নরসিংদী-৩), নাহিম রাজ্জাক (শরীয়তপুর-৩), মো. মাহবুব আলী (হবিগঞ্জ-৪), মোহাম্মদ এবাদুল করিম (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫), রাজী মোহাম্মদ ফখরুল (কুমিল্লা-৪), ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীর (চাঁদপুর-১), এম আবদুল লতিফ (চট্টগ্রাম-১১), সাইমুম সরওয়ার কমল (কক্সবাজার-৩)। বিএনপির মো. আমিনুল ইসলাম (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২) এবং স্বতন্ত্র মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম (লক্ষ্মীপুর-২)।

সংসদ অধিবেশন শেষ দিন সর্বনিম্ন উপস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, এমপিদের প্রধান কাজই হলো সংসদে যাওয়া। সংসদীয় কাজে অংশ নেওয়া। কিন্তু এর ব্যত্যয় দুঃখজনক। আর সংসদ নেতার বক্তব্যের দিন সংসদে যাওয়ার অনীহা আরো অমার্জনীয়। এ বিষয়ে সংসদের হুইপের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

জানা গেছে, সংসদে যাওয়া ও অধিবেশন চলাকালীন সময় অধিবেশন কক্ষে এমপিদের উপস্থিতি নিশ্চিত করার কাজ হলো চিফ হুইপ ও হুইপদের। এজন্য সংসদে চিফ হুইপসহ সাতজন হুইপ রয়েছেন।

এ বিষয়ে চিফ হুইপ নূর ই চৌধুরী লিটন বলেন, বিভিন্ন কারণে এমপিরা সংসদে আসতে পারেন না। তারা অনেকে নির্বাচনী এলাকায় থাকেন। কেউবা বিদেশ। আবার কেউ কেউ অসুস্থ। তবে আগের সংসদগুলোর চেয়ে আওয়ামী লীগের আমলে সংসদে উপস্থিতি বেশি।

সংসদের নোটিশ শাখা সূত্রে জানা গেছে, সংসদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশন ছিল বাজেট অধিবেশন। এটি চলাকালীন দীর্ঘ ২১ কার্যদিবস মোট তিনজন এমপি সংসদে যাননি। তারা হলেন নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা, সিমিন হোসেন রিমি (গাজীপুর-৫) এবং জাতীয় পার্টির হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশন গত ১১ জুন শুরু হয়ে ১১ জুলাই শেষ হয়। এর মধ্যে সংসদ অধিবেশনে মোট ২১টি বৈঠক দিবস ছিল। অধিবেশনকালে সদস্যদের গড় উপস্থিতি ছিল ২৫৯ জন। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন উপস্থিতি ছিল যথাক্রমে ৩০৬ জন (১৩ জুন) এবং ১৫৯ জন (২২ জুন)।

জানা গেছে, ওই সময় বিশ্বকাপ ক্রিকেট চলায় সংসদে যেতে পারেননি মাশরাফি। অন্য দুজন শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। পরে অবশ্য অসুস্থতার কারণে জাতীয় পার্টির প্রেসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা যান।

এদিকে চলমান একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শুরু হবে আগামী ৭ নভেম্বর। ওইদিন বিকাল সোয়া ৪টায় শুরু হবে এ অধিবেশন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads