• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
হজের প্রথম ফ্লাইট যাচ্ছে আজ

হজ ফ্লাইট

সংরক্ষিত ছবি

ধর্ম

হজের প্রথম ফ্লাইট যাচ্ছে আজ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৪ জুলাই ২০১৮

হজের প্রথম ফ্লাইট শুরু হচ্ছে আজ শনিবার। সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বিজি-১০১১ ফ্লাইটটি ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের জেদ্দা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল এবং ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বিমানবন্দরে প্রথম হজ ফ্লাইটের যাত্রীদের বিদায় জানাবেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) শাকিল মেরাজ জানান, অনিবার্য কারণে বিলম্ব না হলে নির্ধারিত সময়েই ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবে ফ্লাইট বিজি-১০১১। একই দিনে বেলা ১১টা ৫৫ মিনিটে হজ ফ্লাইট বিজি-৩০১১, বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে বিজি-৫০১১ এবং রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে সিডিউল ফ্লাইট বিজি-০০৩৫ জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে।

চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও ৯টি ও ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালিত হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস নির্ধারিত সময়ে হজ ফ্লাইট পরিচালনার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

শাকিল মেরাজ আরো জানান, এ বছর হজ ফ্লাইট ও শিডিউল ফ্লাইটে মোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন (ব্যালটি ও নন-ব্যালটি) ধর্মপ্রাণ মুসলমান হজ পালনে বিমানে জেদ্দা যাবেন। তাদের পরিবহনের জন্য ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে বিমানের ৪টি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর বিমান প্রস্তুত রয়েছে। এ বছর সৌদি সরকার নির্ধারিত স্লটের বাইরে অতিরিক্ত কোনো ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেবে না বলে জানিয়েছে।

এ বছর বাংলাদেশ থেকে ২৬ হাজার ৭৯৮ জন হজযাত্রী হজে যাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ১৮৭টি ফ্লাইটে ৬৪ হাজার ৯৬৭ জন এবং সাউদিয়া অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইনস ১৮৮টি ফ্লাইটে ৬১ হাজার ৮৩১ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে।

এদিকে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস জানিয়েছে, প্রথমবারের মতো হজযাত্রীদের টিকেট কেনার পর যাত্রার তারিখ পরিবর্তনে ১০০ মার্কিন ডলার  এবং যাত্রা বাতিলের ক্ষেত্রে ২০০ মার্কিন ডলার বা সমপরিমাণ টাকার বাড়তি মাশুল আদায়ের বিধান চালু করা হয়েছে। ঢাকা থেকে জেদ্দা প্রতি ফ্লাইটের উড্ডয়নকাল হবে আনুমানিক ৭ ঘণ্টা। আগামী ২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন ফ্লাইটে এখনো প্রায় ১২ হাজার হজ টিকেট অবিক্রীত রয়েছে। এ কারণে বিমানের পক্ষ থেকে সব হজ এজেন্সিকে হজযাত্রীদের দ্রুত টিকেট সংগ্রহের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এদিকে, হজযাত্রী পরিবহনে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা না থাকলে কোনো এয়ারলাইনস এ কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবে না এমন নিষেধাজ্ঞায় বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ বিমান। তাদের লিজ নেওয়া দুটি উড়োজাহাজই এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে। হজ ফ্লাইটের জন্য নিজস্ব চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর মডেলের উড়োজাহাজ হজযাত্রী আনা-নেওয়ায় ব্যবহার করা হবে। এতে নিয়মিত ১৫টি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনায় সমস্যায় পড়েছে বিমান। উড়োজাহাজ সঙ্কটে নিয়মিত গন্তব্যের মধ্যে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বিমানের মধ্যপ্রাচ্য, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরের ফ্লাইট। বিশেষ করে সৌদি আরবের তিনটি গন্তব্যে রিয়াদ, দাম্মাম ও জেদ্দায় ফ্লাইটের আগামী দুই মাসের টিকেট বিক্রি ইতোমধ্যে বন্ধ করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে একসঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করেছেন হজ ক্যাম্পে উপস্থিত হাজারও হজযাত্রী। হজ ক্যাম্পের আইটি বিভাগের দেওয়া তথ্যমতে, শুক্রবার পর্যন্ত ৮টি ফ্লাইটের হজযাত্রীরা রিপোর্ট করেছেন। সেই হিসাবে হজ ক্যাম্পে উপস্থিত প্রায় তিন হাজার হজযাত্রী। অন্যদিকে, প্রথমবারের মতো শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় অনলাইনে সৌদি ই-হজ সিস্টেমে প্রি-অ্যারাইভাল ডাটা এন্ট্রি সংক্রান্ত এক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন এজেন্সির প্রতিনিধিরা স্কাইপির মাধ্যমে এ প্রশিক্ষণে যোগ দেন। চলতি বছর হজ ফ্লাইট উড্ডয়নের ৭২ ঘণ্টা আগে যাত্রীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা চেয়েছে সৌদি সরকার। কোনদিন কোন ফ্লাইটে কতজন হজযাত্রী জেদ্দায় নামবে, তারা কোন বাড়িতে যাবে, কোন মোয়াল্লেম তাদের অভ্যর্থনা জানাবে তা নিশ্চিত করতে এ নিয়ম চালু করেছে সৌদি সরকার। সৌদি ই-হজ সিস্টেমে কীভাবে ইনপুট দিতে হয় তা বিভিন্ন এজেন্সিকে জানাতে এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads