• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
হজ ফ্লাইট বাতিল অব্যাহত

বহু লোকের হজে যাওয়া অনিশ্চিত

সংরক্ষিত ছবি

ধর্ম

হজ ফ্লাইট বাতিল অব্যাহত

*সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৮২ হাজার হজযাত্রী * ৮ দিনে ১১ হজ ফ্লাইট বাতিল * জানে না ধর্ম মন্ত্রণালয়

  • কামাল মোশারেফ
  • প্রকাশিত ০৫ আগস্ট ২০১৮

হজযাত্রী সঙ্কটের কারণে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের হজ ফ্লাইট বাতিল অব্যাহত রয়েছে। গতকাল শনিবারের একটিসহ গত ২৭ জুলাই থেকে ৪ আগস্ট পর্যন্ত মোট ১১টি ডেডিকেটেড হজ ফ্লাইট বাতিল করেছে বিমান। এদিকে গত শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত ৮২ হাজার হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। অন্যদিকে একের পর এক হজ ফ্লাইট বাতিল হলেও সে তথ্য জানে না ধর্ম মন্ত্রণালয়।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাড়িভাড়া ও ভিসা অনুমোদনের আগেই টিকেট কিনতে বেসরকারি হজ এজেন্সিগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এ ছাড়া হজ ফ্লাইট শুরুর ৫০ দিন আগেই হজের টিকেট বিক্রি শুরু হয়। এরপর  বারবার তাগাদা দেওয়া সত্ত্বেও এজেন্সিগুলো সময়মতো টিকেট সংগ্রহ করেনি। এখনো পাঁচ হাজারেরও বেশি টিকেট অবিক্রীত রয়েছে। ফলে দেখা দিয়েছে হজযাত্রী সঙ্কট। এর পরিপ্রেক্ষিতেই একের পর এক ফ্লাইট বাতিল হচ্ছে।

গতকালও একই কারণে বিমানের বিজি-১০৬৭ ফ্লাইটটি বাতিল করা হয়। এই ফ্লাইটটি বিকাল ৫টা ৫ মিনিটে সৌদি আরবের উদ্দেশে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়ার কথা ছিল। এটিসহ মোট ১১টি হজ ফ্লাইট বাতিলের কারণে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৪ হাজার ৪০০ ক্যাপাসিটি লস হয়েছে। আজ থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত আরো ৫টি ফ্লাইট বাতিল হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এ বিষয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বাংলাদেশের খবরকে বলেন, যাত্রী সঙ্কটের কারণে হজ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। আমরা প্রতিদিন প্রতিটি এজেন্সিকে হজ আপডেট জানিয়ে তাদের টিকেট নিশ্চিত করতে বলছি। কিন্তু তাদের সাড়া না পেয়ে বাতিল করতে হচ্ছে ফ্লাইট।

ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রকাশিত হজ বুলেটিন সূত্রে জানা গেছে, এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্যে শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত ৮১ হাজার ৭৮৩ জন হজযাত্রী সেখানে পৌঁছেছেন।

গত সোমবার পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনার ৪ হাজার ৫৮ ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ৭৭ হাজার ৭২৫ হজযাত্রী সৌদি গেছেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ১১৬টি ও সৌদি এয়ারলাইনসের ১২০টি ফ্লাইটসহ মোট ২৩৬টি ফ্লাইট এসব হজযাত্রী পরিবহন করে। এ ছাড়া গতকাল শনিবার মোট ৮টি ফ্লাইট সৌদি আরবের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৩টি ও সৌদি এয়ারলাইনসের ৫টি ফ্লাইট।

এদিকে, ধর্ম সচিব মো. আনিসুর রহমান বলেন, যাত্রী স্বল্পতার কারণে একের পর এক হজ ফ্লাইট বাতিল হওয়ার কোনো তথ্যই ধর্ম মন্ত্রণালয়কে জানানো হয়নি। আমাদের আগাম তথ্য দিলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে। তাহলে একের পর এক ফ্লাইট বাতিল হতো না। যতটুকু তথ্য আমাদের কাছে আছে সব মিডিয়ার কাছ থেকে নেওয়া। বিমানের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads