• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
নামাজ গুনাহ থেকে বাঁচার উপায়

নামাজ মানুষকে সব ধরনের গুনাহ থেকে বাঁচিয়ে রাখে

সংগৃহতি ছবি

ধর্ম

নামাজ গুনাহ থেকে বাঁচার উপায়

  • ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ
  • প্রকাশিত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নামাজ মানুষকে সব ধরনের গুনাহ থেকে বাঁচিয়ে রাখে। পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহপাক বলেছেন, (হে নবী!) তোমার প্রতি অহির মাধ্যমে যে কিতাব পাঠানো হয়েছে তা তেলাওয়াত কর এবং নামাজ কায়েম কর, নিশ্চিতভাবেই নামাজ অশ্লীল ও খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখে। আর আল্লাহর স্মরণ এর চাইতেও বড় জিনিস। আল্লাহ জানেন তোমরা যা কিছু কর। (সুরা, আনকাবুত : আয়াত, ৪৫)।

যে ব্যক্তিই নামাজের বিষয়ে সামান্য চিন্তা করবে সে-ই স্বীকার করবে, মানুষকে খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখার জন্য যত ধরনের ব্রেক লাগানো সম্ভব তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি কার্যকর ব্রেক নামাজই হতে পারে। এর চেয়ে বড় প্রভাবশালী নিরোধক আর কী হতে পারে, যার মাধ্যমে মানুষকে প্রতিদিন পাঁচবার আল্লাহকে স্মরণ করার জন্য আহ্বান করা হবে এবং তার মনে এ কথা জাগিয়ে দেওয়া হবে যে, তুমি এ দুনিয়ায় স্বাধীন ও স্বেচ্ছাচারী নও বরং এক আল্লাহর বান্দা এবং তোমার আল্লাহ হচ্ছেন তিনি যিনি তোমার প্রকাশ্য ও গোপন সব কাজ এমনকি তোমার মনের ইচ্ছা ও সঙ্কল্পও জানেন এবং এমন একটি সময় অবশ্যই আসবে যখন তোমাকে আল্লাহর সামনে হাজির হয়ে নিজের যাবতীয় কাজের জবাবদিহি করতে হবে।

নামাজ শুধু মানুষকে অশ্লীল ও অসৎকাজ থেকেই বিরত রাখে না, বরং দুনিয়ায় দ্বিতীয় এমন কোনো অনুশীলন পদ্ধতি নেই- যা মানুষকে গুনাহ থেকে বাঁচিয়ে রাখার ক্ষেত্রে এত বেশি প্রভাবশালী ভূমিকা পালন করতে পারে। এখন প্রশ্ন থেকে যায়, মানুষ নিয়মিত নামাজ পড়ার পর অনেক সময় গুনাহ থেকে দূরে থাকে না। এর উত্তরে  বলা যায়, এটা নির্ভর করে যে ব্যক্তি আত্মিক সংশোধন এবং পরিশুদ্ধি ও অনুশীলন করছে তার ওপর। সে যদি এ থেকে উপকৃত হওয়ার জন্য চেষ্টা করে, তাহলে নামাজের সংশোধনমূলক প্রভাব তার ওপর পড়বে। অন্যথায় দুনিয়ার কোনো সংশোধন ব্যবস্থা এমন ব্যক্তির ওপর কার্যকর হতে পারে না, যে তার প্রভাব গ্রহণ করতে প্রস্তুতই নয় অথবা জেনেবুঝে তার প্রভাবকে দূরে সরিয়ে দিতে থাকে। একটি হাদিসে এসেছে, অনেক নেতৃস্থানীয় সাহাবি ও তাবেঈগণ থেকে হাদিসটি উদ্ধৃত হয়েছে। ইমরান ইবনে হুসাইন বর্ণনা করেন, নবী (সা.) বলেছেন, ‘যার নামাজ তাকে অশ্লীল ও খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখেনি তার নামাজই হয়নি (ইবনে আবী হাতেম)।

ইবনে মাসউদ (রা.) থেকে নবী করিমের (সা.) এ উক্তি উদ্ধৃত হয়েছে, যে ব্যক্তি নামাজের আনুগত্য করেনি তার নামাজই হয়নি আর নামাজের আনুগত্য হচ্ছে, মানুষ অশ্লীল ও খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকবে (ইবনে জারীর ও ইবনে আবী হাতেম)।

লেখক : সাংবাদিক

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads