• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
বায়ুদূষণেও হয় ডায়াবেটিস এক বছরে আক্রান্ত ৩২ লাখ

গবেষক দাবি করেছেন বায়ুদূষণের সঙ্গে ডায়াবেটিস হওয়ারও সম্পর্ক আছে

ছবি : ইন্টারনেট

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বায়ুদূষণেও হয় ডায়াবেটিস এক বছরে আক্রান্ত ৩২ লাখ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৩ জুলাই ২০১৮

বায়ুদূষণের কারণে শ্বাসকষ্টসহ নানা ধরনের শারীরিক জটিলতার কথা অনেক দিন থেকেই আমরা জানি। এছাড়া বায়ুদূষণের কারণে মানুষের কিডনিও যে আক্রান্ত হতে পারে সে তথ্য প্রথম সামনে আনেন চীনের একদল গবেষক। দীর্ঘ ১১ বছর ধরে দেশটির সাউদার্ন মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ৭১ হাজার ১৫১ রোগীর কিডনি বায়োপসির তথ্য বিশ্লেষণ করে বায়ুদূষণের সঙ্গে কিডনি রোগের এ সম্পর্ক বের করেন। ২০১৭ সালে তারা দেখান কিডনির প্রাকৃতিক প্রতিরোধ ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার হার ওই সময়ে ১৩ শতাংশ বেড়েছে।

তবে সম্প্রতি আরেক দল গবেষক দাবি করেছেন বায়ুদূষণের সঙ্গে ডায়াবেটিস হওয়ারও সম্পর্ক আছে। তারা দেখান, ২০১৬ সালে সারা বিশ্বে প্রায় ৩২ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন।

চলতি জুলাই মাসে দ্য ল্যানসেট প্লানেটারি হেলথে প্রকাশিত এই সম্পর্কিত এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ওই বছর (২০১৬) বিশ্বের যত মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ১৪ শতাংশই বায়ুদূষণের শিকার হয়ে।

এছাড়া বায়ুদূষণের কারণে আলোচ্য সময়ে কিছু মানুষ হূদরোগেও আক্রান্ত হয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাড়ি ও কলকারখানার ধোঁয়া এবং বাতাসে ভাসমান অতিক্ষুদ্র বস্তুকণাগুলো রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে বায়ুমণ্ডলের এমন অবস্থা সৃষ্টি করে, যার কারণে শ্বাস নিতেই কষ্ট হয় মানুষের।

গবেষকরা প্রায় ১৭ লাখ মার্কিন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর বায়ুদূষণের প্রভাব নিয়ে প্রায় ১০ বছরের গবেষণার পর জানান, বায়ুদূষণের শিকার হয়ে মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছেন। এই গবেষণাটি করতে গবেষকরা গ্লোবাল স্টাডিজ অন ডায়াবেটিস রিস্ক, যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ রক্ষা এজেন্সি ও নাসার তথ্য-উপাত্ত ব্যবহার করেন।

তবে গবেষকরা জানান, বায়ুদূষণের কারণে সারা বিশ্বেই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা এক রকম নয়। যেসব দেশে বায়ুদূষণের মাত্রা অনেক বেশি সেসব দেশের মানুষই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার বেশি ঝুঁকিতে বেশি থাকেন।

সেই হিসাবে চীন, পাকিস্তান, ভারত ও বাংলাদেশের মতো দেশগুলোর মানুষই বায়ুদূষণের কারণে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের বাতাস এখন কিছুটা ভালো থাকলেও এই রোগের ঝুঁকির তালিকায় উপরের দিকেই আছে।

সাধারণত বেশিরভাগ মানুষই বংশগতভাবে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন। এছাড়া অতিরিক্ত ওজন ও কম পরিশ্রমও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে, পৃথিবীতে এখন প্রায় ৪২ কোটি মানুষ টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। অথচ ১৯৮০ সালে এই সংখ্যা ছিল মাত্র ১০ কোটির কাছাকাছি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads