• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
রক্তদাতার সন্ধান দেবে ‘ব্লাড ম্যানেজার’

‘ব্লাড ম্যানেজার’ নামে একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু হয়েছে

সংরক্ষিত ছবি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

রক্তদাতার সন্ধান দেবে ‘ব্লাড ম্যানেজার’

  • এম রেজাউল করিম
  • প্রকাশিত ২১ জুলাই ২০১৮

রক্তের প্রয়োজনে রক্তদাতার খোঁজে আমরা প্রায়ই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে বা বিভিন্ন গ্রুপে রক্তের গ্রুপসহ রোগীর যাবতীয় তথ্য ও ফোন নাম্বার পোস্ট করে থাকি যেন এই পোস্ট থেকে খুব দ্রুত রক্তদাতার সাড়া পাওয়া যায়। তবে রক্ত সংগ্রহ করতে গিয়ে প্রতারণার শিকার হন অনেকেই। এ ধরনের প্রতারণা ঠেকানোসহ রক্তদাতা খুঁজে পাওয়ার কাজটি আরো সহজ করতে ‘ব্লাড ম্যানেজার’ নামে একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু করেছে বাংলাদেশ ব্লাড ডোনারস ফোরাম।

অ্যাপটিতে সারা দেশের স্বেচ্ছায় রক্তদানে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের ছবিসহ বিস্তারিত তথ্য দেওয়া আছে। দেশের বিভিন্ন জেলা অনুযায়ী রক্তগ্রহীতারা সেই জেলায় স্বেচ্ছাসেবকের মাধ্যমে যোগাযোগ করে রক্তদাতার সন্ধান পাবে। এ ছাড়া সরাসরি অ্যাপ থেকে সার্চ করে যেকোনো গ্রুপের রক্তদাতা খুঁজে নেওয়া যাবে। অ্যাপে রক্তদাতারা নিজের ছবিসহ নিবন্ধন করে সহজেই রক্তদান কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবে।

অ্যাপটির হোমপেজে একটি কলসেন্টারের নাম্বার দেওয়া আছে। আর স্ক্রল করে একটু নিচে নামলেই ‘রক্তদাতা খুঁজুন’ নামের একটি অপশন আছে। সেখানে ক্লিক করলে নতুন একটি পেজ আসবে যেখানে রক্তের গ্রুপ, নির্ধারিত জেলা এবং উপজেলা সিলেক্ট করে সার্চ দিলেই রক্তদাতাদের তালিকা চলে আসবে।

এ ছাড়া অ্যাপটির হোমপেজ থেকেই রক্ত চেয়ে আবেদন করা যাবে। সেক্ষেত্রে আবেদনকারীর নাম, রক্তগ্রহীতার নাম, রোগের নাম, রোগী যে হাসপাতালে আছে সেখানকার বেড, কেবিন, ওয়ার্ড নম্বরসহ হাসপাতালের পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা, কোন তারিখে কোন সময়ের মধ্যে রক্ত প্রয়োজন, কোন গ্রুপের কত ব্যাগ রক্ত লাগবে তার পরিমাণ এবং রোগীর সঙ্গে থাকা আত্মীয়ের মোবাইল নম্বর দিয়ে রক্তের জন্য আবেদন করা যাবে।

রক্তগ্রহীতা ছাড়াও অ্যাপটিতে নিবন্ধিত রক্তদাতাদের জন্যও থাকছে বিশেষ সুবিধা। প্রত্যেক রক্তদাতার রক্তদানের সময় হলে তার আইডির পাশে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সবুজ রঙের একটি মার্ক থাকবে। এর মাধ্যমে বোঝা যাবে যে, রক্তদাতা রক্ত দিতে পারবেন। আর যাদের চার মাস সময় হয়নি তাদের লাল রঙ দিয়ে মনে করাবে তার এখনো রক্তদানের সময় হয়নি। এ ছাড়া যেকোনো রক্তদাতা অ্যাপ সম্পর্কে তার ব্যক্তিগত মতামতও দিতে পারবে।

এই অ্যাপের মাধ্যমে রক্তদাতা খোঁজা ছাড়াও সংগঠনটির মেডিকেল টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা নেওয়া যাবে। এ ছাড়া রক্তদানের সচেতনতা ও উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যও জানা যাবে অ্যাপটি থেকে।

অ্যাপটির বিষয়ে এর প্রতিষ্ঠাতা কামরুল হাসান বলেন, ‘আমাদের সংগঠনে ছয় হাজারের বেশি নিবন্ধিত রক্তদাতা রয়েছেন। দেড় মাস আগে চালু করা এই অ্যাপে প্রায় দেড় হাজারের মতো রক্তদাতা স্বেচ্ছায় নিবন্ধন করেছেন। আমাদের এই প্ল্যাটফর্মে ও-পজিটিভ এবং বি-পজিটিভ রক্তদাতা বেশি। আর এবি-নেগেটিভ ডোনার অনেক কম। তবে এখন পর্যন্ত ও-পজিটিভ রক্তের চাহিদা বেশি।’ গত দেড় মাসে অ্যাপটিতে ১ হাজার ৩০০-এর বেশি রিকোয়েস্ট এসেছে বলেও জানান তিনি।

কামরুল আরো বলেন, প্রতি জেলার স্বেচ্ছাসেবকদের কাছে এক হাজারের বেশি ব্লাড ডোনারের তথ্য আছে। সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, স্বেচ্ছাসেবকদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে রক্ত পেতে তারাও সহায়তা করবে। এ ছাড়া কল করে বা অ্যাপে পোস্ট করার মাধ্যমে রক্ত সন্ধানকারীরা বিস্তারিত জানাতে পারবে।

প্রসঙ্গত, নিজেদের কার্যক্রমের কারণে ইতোমধ্যেই ফেসবুক কর্তৃপক্ষ থেকে স্বীকৃতি পেয়েছে সংগঠনটি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads