• মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
ডাটাসাশ্রয়ী জনপ্রিয় অ্যাপ

এন্ট্রি লেভেলের স্মার্টফোনে র্যাম ও রম থাকে তুলনামূলক কম

ছবি : ইন্টারনেট

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ডাটাসাশ্রয়ী জনপ্রিয় অ্যাপ

  • শাহাদাত হোসেন
  • প্রকাশিত ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফেসবুক, মেসেঞ্জার, গুগল ম্যাপস প্রভৃতি অ্যাপ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। তবে এসব অ্যাপ আকারে বেশ বড় এবং ব্যবহারে ইন্টারনেট খরচ হয় তুলনামূলক বেশি। এন্ট্রি লেভেলের স্মার্টফোন ব্যবহার করেন, এমন ব্যবহারকারীদের জন্য এই অ্যাপগুলো ব্যবহার করা কিছুটা ঝামেলার। কারণ, এন্ট্রি লেভেলের স্মার্টফোনে র্যাম ও রম থাকে তুলনামূলক কম। তবে এসব স্মার্টফোন এবং বাড়তি ইন্টারনেট খরচের বিষয়টি মাথায় রেখে অ্যাপগুলোয় বিশেষ সংস্করণ উন্মুক্ত করা হয়েছে, যা স্মার্টফোনের খুব কম জায়গা দখল করে এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করে খুবই কম পরিমাণে। ব্যবহারকারীবান্ধব এমনই কিছু অ্যাপের খবর থাকছে আজ-

ফেসবুক লাইট

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান ফেসবুকের। কমবেশি সব স্মার্টফোন ব্যবহারকারীই ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন। তাই ফেসবুক অ্যাপের এই অপটিমাইজড সংস্করণটি ২০১৫ সালে চালুর পর থেকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। অ্যাপটি স্মার্টফোনের মাত্র ১ দশমিক ৩৪ মেগাবাইট স্টোরেজ স্পেস দখল করে। মূল সংস্করণের মতো প্রায় সব ফিচারই পাওয়া যাবে লাইট সংস্করণে। আর এতে ইন্টারনেট খরচও হবে খুব কম। উচ্চগতির ইন্টারনেট না থাকলেও টুজি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে অনায়াসেই এটি ব্যবহার করা যাবে।

মেসেঞ্জার লাইট

৮ দশমিক ০৭ মেগাবাইট আকারের এ সংস্করণটিও ফেসবুক লাইটের মতো একইভাবে কাজ করে। টেক্সট মেসেজ পাঠানোর পাশাপাশি ভয়েস এবং ভিডিও কল করার সুবিধাও রাখা হয়েছে এ সংস্করণটিতে। এছাড়া মেসেঞ্জারে যুক্ত হওয়া নিত্যনতুন ফিচারগুলোও পাওয়া যাবে লাইট সংস্করণে।

টুইটার লাইট

ফেসবুকের মতো টুইটারেরও রয়েছে একটি ডাটা অপটিমাইজড সংস্করণ। এর সাইজ ১ মেগাবাইটেরও কম। গত বছরের শেষের দিকে অ্যাপটি চালু করেছে টুইটার। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, থ্রিজি নেটওয়ার্কের পাশাপাশি টুজি নেটওয়ার্কেও খুব দ্রুতই অ্যাপটি কাজ করবে। এছাড়া এতে রয়েছে ডাটা সেভিং মোড। এ ফিচারের মাধ্যমে শুধু প্রয়োজনীয় পোস্টগুলোর ছবি এবং ভিডিও লোড করা যাবে, যা ডাটা সাশ্রয় করবে।

গুগল গো

প্রয়োজনীয় তথ্য খোঁজার জন্য গুগলের বিকল্প নেই। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে আরো সহজে গুগলে তথ্য খোঁজার জন্য রয়েছে গুগল অ্যাপ। তবে ডাটা অপটিমাইজড একটি সংস্করণ রয়েছে অ্যাপটির। গুগল গো নামের এ সংস্করণ ব্যবহার করা যাবে অল্প স্টোরেজ স্পেসবিশিষ্ট স্মার্টফোনেও। গুগল দাবি করেছে, এ অ্যাপটির মাধ্যমে ৪০ শতাংশ কম ডাটা খরচ করেই প্রয়োজনীয় সব তথ্য পাওয়া যাবে।

গুগল ম্যাপস গো

অপরিচিত জায়গায় গন্তব্যস্থল সহজে খুঁজে পেতে কিংবা নিকটবর্তী রেস্টুরেন্ট, অফিস বা অন্য কোনো স্থাপনার খোঁজ পেতে গুগল ম্যাপ অবিকল্প সমাধান। তবে এটি স্মার্টফোনে অনেক বেশি স্পেস দখল করে এবং ডাটা খরচও খুব বেশি। তাই উন্নয়নশীল দেশগুলোর কথা মাথায় রেখে গুগল এনেছে ম্যাপস গো নামের একটি সংস্করণ। এটি মাত্র ১৬৭ কিলোবাইট আকারের। মূল অ্যাপের মতো ডিরেকশন, ট্রাফিক আপডেট, ট্রানজিট ইনফরমেশনসহ অন্যান্য তথ্য পাওয়া যাবে বিশেষ এ সংস্করণটিতে।

উবার লাইট

স্মার্টফোনভিত্তিক ট্যাক্সি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি রয়েছে বাংলাদেশেও। এখানে ট্যাক্সি সেবার সঙ্গে বাইক রাইড সেবাও দিচ্ছে উবার। গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মটি। কিছুদিন আগেই মূল অ্যাপের লাইট সংস্করণ উন্মুক্ত করেছে উবার। এটি স্মার্টফোনের ৫ মেগাবাইটেরও কম জায়গা দখল করে। উবার জানিয়েছে, ধীরগতির ইন্টারনেট সংযোগেও ৩০০ মিলিসেকেন্ডের কম সময়ে অ্যাপটি রেসপন্স করতে সক্ষম।

স্কাইপ লাইট

ভিডিও ও ভয়েস কলের জনপ্রিয় অ্যাপ স্কাইপ। ২০১৭ সালের শুরুর দিকে এ অ্যাপটিরও একটি অপটিমাইজড সংস্করণ উন্মুক্ত করেছে মাইক্রোসফট। মূল অ্যাপের মতোই নিয়মিত সব ফিচার রয়েছে এতে। বিল্টইন ডাটা সেভিং মোড থাকায় এতে বাড়তি ডাটা খরচের ঝামেলাও থাকছে না।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads