• রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
ভুলের ঊর্ধ্বে কেউই না  : সানাই

ছবি : সংগৃহীত

শোবিজ

ভুলের ঊর্ধ্বে কেউই না আমরা : সানাই

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপত্তিকর ভিডিও ছাড়ানো থেকে বিরত থাকার অঙ্গীকারে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেলেন নায়িকা-মডেল সানাই মাহবুব সুপ্রভা। গতকাল রোববার সকালে তাকে আটক করে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিট। এরপর তাকে নিয়ে আসা হয় সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে। ঐদিন বিকেলে অঙ্গীকারনামায় মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেন পুলিশ। 

তবে আটকের বিষয়টি সত্য নয় বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভা। তিনি বলেন, আমাকে আটক করে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়নি। আমাকে ডাকা হয়েছিল কথা বলার জন্য। সেজন্য আমি সেখানে গিয়েছিলাম। আমার কিছু সিদ্ধান্তে ভুল ছিল। যে জিনিসগুলো বুঝতে পারিনি। যেটা গতকাল (রোববার) সাইবার ক্রাইম ইউনিট খুব সুন্দর করে আমাকে বুঝিয়ে বলেছে।

এখন সানাই কি করবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেহেতু আমি বুঝতে পেরেছি আমার কিছু কন্টেন্ট যেগুলো আমার দেশের জন্য না। আমি আর এগুলো নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে না আসলেও হারিয়ে যাবো না। এখন আমি আমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকব এবং আমার বাকি কাজগুলো শেষ করব।

এর আগে রোববার রাতে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগকে ধন্যবাদ দিয়ে ফেসুবক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভা। স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হলো-

প্রথমেই ধন্যবাদ বাংলাদেশ সাইবার অপরাধ নিরাপত্তা বিভাগকে। একজন বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে আমি দেশের সমস্ত আইনকে গভীরভাবে শ্রদ্ধা ও সম্মান করি। আমি মনে করি, এদেশ যেমন আমার, আমিও এদেশেরই...

ভুল ভ্রান্তির বাইরে আমরা কেউ না, হতে পারি আমরা তারকা কিংবা শিল্পী, ভুলের ঊর্ধ্বে কেউই না আমরা...

আমার সব সময়ই Target ছিল আমেরিকান মডেল দের মত হওয়া, আমি চিন্তা করেছিলাম কেন ম্যারি ম্যাডাম তুস্যেতে পাশের দেশ ইন্ডিয়ানদের ছবি শোভা পাবে কেন আমাদের দেশের মডেলদের ছবি শোভা পাবেনা??? আমরা বাংলাদেশীরা কোন অংশেই কারো চেয়ে কম না, আমার উদ্দেশ্য একটাই ছিল, আমি বাংলাদেশ কে মডেলিং এ ইন্টারন্যাশনালি আরও উচ্চ আসনে নিয়ে যেতে চেয়েছিলাম, এখনও চাই... এবং মরার আগ পর্যন্ত চাইব কিন্তু সেটা বাংলাদেশের কালচারকে ভুলে গিয়ে না এবং আমার প্রসেসিং এ কিছু ভুল ছিল, ভুল আমারই হয়েছিল যে জিনিসগুলো বুঝতে যেটা আজকে সাইবার ক্রাইম ইউনিট খুব সুন্দর করে আমাকে বুঝিয়ে বলেছে। Again thanks to Ciber unit again.

আমার আর একটি ভুল যেটা আমি বুঝেছি যে আমাদের বাংলাদেশ শুধু ১৮+ মানুষের দেশ না, এখানে আছে ১৮- কিছু অবুঝ শিশু এবং উঠতি কিশোর-কিশোরী যাদের জন্য এই কন্টেন্টগুলো ঠিক না... আমার দেওয়া কিছু ছবি কিংবা লাইভ ভিডিও ১৮+, আমি সত্যি ভুলেই গেছিলাম যে, এগুলার ইফেক্ট শিশু কিশোরদের উপর ভয়ংকর হতে পারে.... আমি সত্যি sorry, এবং ধন্যবাদ সাইবার ক্রাইম ইউনিট আমাকে আমার ভূল ধরিয়ে দেওয়ার জন্য....

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads