• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৫
ads
নতুন পরিচয়ে টয়া

ছবি : সংগৃহীত

শোবিজ

নতুন পরিচয়ে টয়া

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১০ জুন ২০১৯

ছোটপর্দায় জনপ্রিয় অভিনেত্রী মুমতাহিনা টয়া। কয়েক বছর ধরেই বৈচিত্র্যপূর্ণ ও নান্দনিক অভিনয় দিয়ে শোবিজ অঙ্গনে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত করেছেন তিনি। আলোচনায় থাকেন নিত্যনতুন চরিত্রাভিনয়ে। এবার অবশ্য নতুন পরিচয়ে পরিচিত হতে যাচ্ছেন টয়া। অভিনেত্রীর পরিচয় থেকে বেরিয়ে প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন টয়া।

এ বিষয়ে টয়া বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই নতুন কিছু একটা করার পরিকল্পনা মাথায় ঘুরছিল। পরে ঠিক করলাম প্রযোজনায় নামব। এখন অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী প্রযোজনা করছেন। এতে আমাদের ইন্ডাস্ট্রির জন্যই ভালো হবে, সঙ্গে ব্যবসাও। সব মিলিয়ে আমি এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে আছি। আপাতত মার্কেট ও কনটেন্ট যাচাই-বাছাই করছি। এখন তো দর্শক ভাগ হয়ে গেছে। কিছু সংখ্যক দর্শক এখনো টিভিতে আটকে আছে, আবার কিছু সংখ্যক দর্শক ঝুঁকছে ডিজিটাল প্ল্যাটফরমে। প্রযোজনা যে কোনো মাধ্যমের জন্যই করতে পারি। চেষ্টা করছি, যত দ্রুত সম্ভব প্রযোজনায় আসতে।

এদিকে এবার ঈদে প্রায় এক ডজন নাটকের জন্য কাজ করেছেন টয়া। নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি তাকে দেখা গেছে বড়পর্দায়ও। রাহশান নূর পরিচালিত ‘বেঙ্গল বিউটি’ নামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে বিকল্পধারার চলচ্চিত্র দর্শকদের মন জয় করেছেন টয়া। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভালো গল্প ও চরিত্র পেলে আবারো বড়পর্দায় কাজের ইচ্ছে আছে। আপাতত নাটকের মানুষ নাটকেরই থাকি।’

লাক্স সুপারস্টার হয়েছেন ২০১১ সালের শুরুতে। তারপর থেকে টুকটাক কাজ করতেন। কখনো বিজ্ঞাপন, নাটক বা টেলিছবি। ২০১৬ সালের শেষ দিকে প্রকাশ পায় টয়ার নাচের ‘লোকাল বাস’ গানের মিউজিক ভিডিও। তারপরই বদলে যায় সব হিসাবনিকাশ। গানটির ‘হিট’ তকমা লাগার পরপরই অনবরত মিউজিক ভিডিওর জন্য প্রস্তাব পেতে থাকেন টয়া। করেছেনও দু-তিনটি। কিন্তু সে অর্থে ‘লোকাল বাস’-এর জায়গা ছুঁতে পারেনি একটিও। এখন নাটক করছেন নিয়মিত, বিজ্ঞাপনও।

নিজের কাজ সম্পর্কে বেশ সচেতন টয়া। তার এখন পুরোদস্তুর প্রেম চলছে কাজের সঙ্গে। ‘যে চরিত্রে যখন ঢুকে যাই, তখন আসলে চরিত্র বা বিপরীত মানুষ দুটির সঙ্গেই প্রেম করি। ভালো কিছু করার জন্য পরিচালক ও সহ-অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে প্রেম করি। এই প্রেম না থাকলে ঠিকঠাক কাজ করা কঠিন।’

টয়ার বাবা ব্যবসায়ী, মা স্কুলশিক্ষিকা। দুজন সফল। টয়া কি সফল? জবাবে তিনি বলেন, ‘মা’র ও আমার সফলতা, সবকিছুর পেছনে আমার বাবার প্রচ্ছন্ন হাতটা আছে। মায়ার ছায়ার মতো ওই হাত না থাকলে এত কিছু সম্ভব হতো না। উনি নিজের ক্যারিয়ারের চেয়ে আমাদের নিয়ে বেশি ভাবতেন। এ কারণেই আমরা এখনো ঠিকঠাক আছি, ঠিকঠাক কাজ করতে পারছি।’

তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে টয়ার প্রযোজনায় নামার বিষয়টি সবাই ইতিবাচকভাবেই দেখছে। ভক্তরাও অপেক্ষায় আছে, প্রযোজক টয়াকে দেখার জন্য।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads